• শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৩ ১৪২৭

  • || ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২১, শনাক্ত ৫৭৮ ২২ সালের মধ্যে ঢাকা-কক্সবাজার রেল চালু হবে: রেলমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ১৬ জনের মৃত্যু ৬২ সহযোগীর মাধ্যমে অর্থপাচার, পিকে হালদারের হাজার কোটি টাকা ফ্রিজ কোনো প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ানো হবে না : উশৈসিং বাংলাদেশে বিশ্বের সেরা মানের পাট উৎপাদিত হয়: পাটমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৯০ পিকে হালদারের বান্ধবী গ্রেফতার করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৬, শনাক্ত ৭১৮ আওয়ামী লীগ সরকারে আছে বলেই দেশ স্বনির্ভর হয়ে উঠছে: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৮৪৯ ভাসানচর নিয়ে আন্তর্জাতিক এজেন্সির সাপোর্ট পাচ্ছি: মোমেন এইচএসসির ফল ২৮ জানুয়ারির মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর জা রওশন আরা ওয়াহেদ আর নেই সংগঠন গড়ার জন্য বঙ্গবন্ধু মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন: শেখ হাসিনা প্রতারণার মামলায় রিজেন্ট সাহেদের জামিন নামঞ্জুর আমাদের দলে মুক্তভাবে কথা বলার অধিকার সবার আছে- তথ্যমন্ত্রী দুদকের মামলায় সাবেক ওসি প্রদীপের জামিন নামঞ্জুর বাংলাদেশ ও বাঙালির অনুপ্রেরণার উৎস বঙ্গবন্ধু: রাষ্ট্রপতি করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৬৯২

ঈদের পর বাড়ি যেতে চাওয়ায় খালেদার গৃহকর্মী ফাতেমাকে মারধর

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৮ মে ২০২০  

দুর্নীতি মামলায় ২ বছরের অধিক সময় জেলখাটার পর গত ২৫ মার্চ সরকারের মহানুভবতায় মুক্তি পেয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। বিএনপি নেত্রীর সেবায় নিয়জিত ও স্বেচ্ছায় কারাবন্দী গৃহকর্মী ফাতেমাও বেগম জিয়ার সাথে গুলশানের ভাড়াবাড়িতে উঠেছেন।

কিন্তু কারাগার থেকে মুক্ত হলেও এখনই বেগম জিয়ার কাছ থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না ফাতেমা। এমনকি পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা কিংবা কথা বলারও সুযোগ পাচ্ছেন না তিনি।

গোপন সূত্রে জানা গেছে, সেবা দিতে ব্যাঘাত ঘটবে এমন চিন্তা থেকেই বেগম জিয়া ও তার পরিবারের সদস্যদের নিষ্ঠুরতার কারণে নিজ সন্তান ও বাবার সাথে কোন রকম যোগাযোগ করতে পারছেন না ফাতেমা। বাড়িতে যেতে চাইলে করোনার ভয় দেখানো এবং ঈদের পর ছুটি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তাকে দমিয়ে রাখা হচ্ছে। তাই পরিবারের কথা চিন্তা করে আনমনে বেগম জিয়ার সেবা-শশ্রুসায় ভুল করছেন ফাতেমা। যার কারণে বেগম জিয়ার ছোট বোন সেলিমা ইসলামের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন তিনি। বাড়ি যাওয়ার দাবি করায় ফাতেমাকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ফাতেমার বাড়ি যাওয়া ও নির্যাতনের বিষয়ে জানতে চাইলে পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বেগম জিয়ার নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত সিএসএফের এক সদস্য বলেন, জেল থেকে বের হওয়ার পরপর ফাতেমা বাড়ি যেতে চেয়েছিল। কিন্তু ম্যাডাম জিয়ার অনুরোধে সে যায়নি। অবশ্য তার পরিবারের সদস্যদের ঢাকায় আসার কথা ছিল, কিন্তু করোনার কারণে তারা আসতে পারছে না। বাড়ির কাজের লোকরা তো প্রায়শই ভুল করেন, যার কারণে হয়তো ফাতেমাকেও ম্যাডামরা একটু বকেছেন। এটি বড় কোন সমস্যা নয়। আর ফাতেমাকে জোর করে আটকে রাখার তথ্যটি সঠিক নয়। প্রতিমাসে তাকে নিয়মিত বেতন দেয়া হয়। আর গৃহকর্মীরা চাইলেই কি তার সব ইচ্ছা পূরণ করতে হবে, এমনটি কোথায় লেখা নেই।