• মঙ্গলবার   ১১ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭

  • || ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
করোনায় আরও ৩৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯০৭ পদ্মা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ মামলায় সাহেদ ৭ দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৪৮৭ দলীয় পরিচয় কোনো অপরাধীকে রক্ষা করতে পারেনি: কাদের লাইসেন্স নবায়ন না করলেই বেসরকারি হাসপাতাল বন্ধ দেশে করোনায় আরও ৩২ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১১ কাল অনলাইনে শুরু একাদশের ভর্তি, যেভাবে আবেদন করবেন সুযোগ আছে, করোনা সংকটেও বিনিয়োগ আনতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবের ফোন করোনায় আরও ৩৩ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৫৪ কামাল বেঁচে থাকলে সমাজকে অনেক কিছু দিতে পারতো: শেখ হাসিনা সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৫০ মৃত্যু, শনাক্ত ১৯১৮ করোনায় আরও ৪৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অসচ্ছল গর্ভবতী নারীরা পাবে চার হাজার টাকা ট্রাফিক পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণ, ‘নব্য জেএমবির সদস্য’ আটক করোনায় আরও ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩০০৯ ১২ কোটি টাকা আত্মসাত করে গ্রেফতার যমুনা ব্যাংকের ম্যানেজার থানায় বিস্ফোরণে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই : পুলিশ ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ২৯৬০, মৃত্যু ৩৫
১৫৪

উপকূলে বাংলাদেশের হাতে থাকবে রাডারের নিয়ন্ত্রণ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০১৯  

 

বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় রাডার স্থাপন নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়ানো হয়েছে। কিছু মানুষ এতে বিভ্রান্তও হয়েছে। এর কারণ হলো বেশিরভাগ মানুষ বাংলাদেশ-ভারত যৌথ ঘোষণাটি পড়েই দেখেনি। 

বেশিরভাগ মানুষ এই বিষয় নিয়ে অপপ্রচারমূলক লেখা এবং খবরগুলো বেশি দেখেছে। এর কারণ হলো বাংলাদেশ বিরোধী একটি গোষ্ঠী এবং কিছু জ্ঞানপাপীরা ষড়যন্ত্রমূলকভাবে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্যই পরিকল্পিতভাবে এই অপপ্রচার করেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম দিয়ে সবার কাছে সুনিপুণভাবে মিথ্যা তথ্য পৌঁছে দিয়েছে।

বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় রাডার স্থাপন নিয়ে Joint Statement বা বাংলাদেশ-ভারত যৌথ ঘোষণায় কী বলা আছে? চলুন দেখে নিই :

(Both Prime Ministers welcomed the initiatives for development of closer Maritime Security Partnership, and noted the progress made in finalization of an MoU on Establishment of Coastal Surveillance Radar System in Bangladesh and encouraged both sides for early signing of the MoU.)

এর অর্থ হলো- আমরা মূলত ভারতের কাছ থেকে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় স্থাপনের জন্য রাডার কিনব এবং মজার ব্যাপার হলো আমরা ভারতের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে এই রাডারগুলো কিনব এবং স্থাপন করব। আমাদের এককালীন পুরো টাকাও দিতে হবে না। আমরা কিস্তিতে এই টাকা পরিশোধ করব। পুরো Surveillance Radar System বাংলাদেশেই বসবে এবং বাংলাদেশের হাতেই থাকবে। বাংলাদেশ নৌবাহিনী এই রাডারের মাধ্যমে আমাদের উপকূলীয় এলাকায় নজরদারি করবে।

আমরা যেমন বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট তৈরি করতে ফ্রান্সের সহযোগিতা নিয়েছি এবং উৎক্ষেপণ করতে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা নিয়েছি কিন্তু স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রণ এবং মালিকানা আমাদের হাতেই আছে। একইভাবে মেট্রো রেল তৈরি করতে জাপানের ঋণ নিচ্ছি এবং তাদের প্রযুক্তি কিনছি কিন্তু মেট্রোরেল তো আমরাই ব্যবহার করব। চীনের কাছ থেকে সাবমেরিন কিনেছি এবং সাবমেরিন পরিচালনায় চীনের সহযোগিতা নিয়েছি কিন্তু সাবমেরিনের মালিকানা এবং নিয়ন্ত্রণ বাংলাদেশেরই আছে। বাংলাদেশের নৌবাহিনী নিয়ন্ত্রণ এবং ব্যবহার করছে এই সাবমেরিনগুলো। একইভাবে ভারতের কাছ থেকে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় স্থাপনের জন্য আমরা রাডার কিনব এবং এগুলো স্থাপনে তাদের সহযোগিতা নিব।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট বা মেট্রো রেল বা চীনা সাবমেরিনের মতো বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় স্থাপিত রাডারগুলো বাংলাদেশই নিয়ন্ত্রণ করবে এবং ব্যবহার করবে। বাংলাদেশ নৌবাহিনী এই রাডারগুলো দিয়ে নজরদারির মাধ্যমে উপকূলীয় এলাকায় আমাদের নিরাপত্তা সুরক্ষার করবে।

লেখক :
অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী আরাফাত
চেয়ারম্যান, সুচিন্তা ফাউন্ডেশন

পাঠকের চিন্তা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর