শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার একুশে পদক মেধা ও মনন চর্চার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত করবে : রাষ্ট্রপতি এনামুল বাছিরের পদোন্নতির আবেদন হাইকোর্টে খারিজ সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সুস্থ যুব সমাজের বিকল্প নেই : প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ ডাকঘর সঞ্চয়ের সুদহার পুনর্বিবেচনা করা হবে : অর্থমন্ত্রী মুঠোফোন প্রতারক জিনের বাদশা গ্রেফতার করোনাভাইরাস নিয়ে গুজবে কান দিবেন না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাগর তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও না করলে দেশ আরো এগিয়ে যেত : তথ্যমন্ত্রী শহীদ দিবসে জঙ্গি হামলার কোনো সম্ভাবনা নেই : ডিএমপি কমিশনার দেশে ব্রয়লারসহ কোন পশু-পাখির মধ্যে করোনা পাওয়া যায়নি : আইইডিসিআর বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশ এখন অনুকরণীয়: শ ম রেজাউল ওআইসিকে শক্তিশালী করতে চাই: ড. মোমেন
৩৯০

ওমরাহ ভিসাতেই যেসব দর্শনীয় স্থান ঘুরতে পারবেন

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের কাছে ওমরাহ খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। গতবছর সৌদির পাসপোর্ট অধিদফতর এক সংবাদ বিবৃতিতে জানায়, ওমরাহ ভিসা নিয়ে মক্কা, মদিনা ও জেদ্দার বাইরে সৌদি আরবের অন্যত্র স্থান ভ্রমণ অবৈধ। এবার এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে দেশটি।

বাংলাদেশের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় গত ২৩ জানুয়ারি এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। এতে বলা হয়, ২০১৯ সাল থেকে বাংলাদেশিরা ওমরা পালনের জন্য ভিসা নিয়ে সেদেশের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করতে পারবেন। এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে সৌদি সরকার। তবে এজন্য দেশটির ট্যুরিজম ও ন্যাশনাল হেরিটেজ অথরিটির অনুমোদিত ট্রাভেল অপারেটরের মাধ্যমে ভ্রমণ করতে হবে।

হজ ও ওমরাহ থেকে সৌদি আরবের বার্ষিক আয় হয় ১২ হাজার কোটি ডলার। সৌদি আরবের অন্য যেসব প্রাচীন স্থান রয়েছে, সেগুলোতেও যেন ভ্রমণপ্রেমীরা যেতে উৎসাহিত হন, সেই ব্যাপারে গুরুত্ব দিচ্ছে দেশটি। যদিও আগে দেশটিতে ধর্মীয় রীতি পালন করতে আসা পর্যটকদেরও কড়াকড়ির মধ্যে পড়তে হতো। পর্যটনের বিকাশের লক্ষ্যে এসব শিথিল করা হচ্ছে।

ডেপুটি হজ্জ ও ওমরাহ মন্ত্রী আব্দুল ফাত্তাহ মাসহাতের বরাত দিয়ে সৌদি আরবি পত্রিকা আল ইয়াওম প্রকাশ করেছে, এর আগে সৌদি আরবে প্রবেশের জন্য ওয়ার্ক পারমিট, হজ্জ, ওমরা, ফ্যামিলি ভিজিট ও বিজনেস ভিজিট ভিসা চালু ছিলো। কিন্তু টুরিস্ট ভিসার কোনো সুযোগ ছিল না। ওমরার সঙ্গে টুরিস্ট ভিসা চালু হবে ৩০ দিনের জন্য। এর মধ্যে ওমরা পালন ও মসজিদে নব্বী জেয়ারতের জন্য ১৫ দিন অতিবাহিত করতে হবে। বাকী ১৫ দিন ওমরা পালনকারীগণ টুরিস্ট সুবিধা পাবেন ও যে কোনো শহর ও ঐতিহাসিক স্থান ভ্রমণ করতে পারবেন।

এই বিভাগের আরো খবর