• বুধবার   ০৮ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৪ ১৪২৬

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
যারা সাহায্য চাইতে পারবে না তাদের তালিকা করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী দেশে করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত বেড়ে ১৬৪ কারাগারে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ আদালতে বঙ্গবন্ধু হত্যা: আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন মাজেদ গ্রেফতার চিকিৎসকরা কেন চিকিৎসা দেবে না, এটা খুব দুঃখজনক : প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নীতিমালা করার নির্দেশ রমজানে সরকারি অফিস ৯টা থেকে সাড়ে ৩টা প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়ন হলে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াবে: অর্থমন্ত্রী করোনা: ৭৩ হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা বেসরকারি হাসপাতাল চিকিৎসা না দিলেই ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রতি উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আজ থেকে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সেনাবাহিনী মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সমালোচনা করছে বিএনপি : কাদের দেশে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ২৬ জন সুস্থ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেনাবাহিনী কতদিন মাঠে থাকবে সরকার বিবেচনা করবে: সেনাপ্রধান করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
১৪৬

ওরা ‘ভদ্র’ চোর

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১ মার্চ ২০২০  

ওরা ‘ভদ্র’ চোর, কারণ সাধারণ চোরদের মতো ওরা চুরি করে না। যেহেতু ভদ্র চোর, তাই তাদের চুরির কৌশলও ভিন্ন। চুরির পণ্যের মধ্যে থাকে দামি মোবাইল ফোন, টেলিভিশন এবং ক্যামেরা। এলাকায় ভদ্র ছেলে হিসেবেই তারা পরিচিত।
 
নগরীর খুলশী থানা পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে নূর মোহাম্মদ রাসেল এবং রবিউল হাসান রবি ওরফে রকি নামে দুই ‘ভদ্র’ চোর। যাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি করা ৪০টি মোবাইল ফোন, ৩টি ল্যাপটপ, ৫টি ট্যাব ১টি এলইডি টেলিভিশন এবং ১টি ক্যামেরা।

দুই চোরকে টানা জিজ্ঞাসাবাদ করছে খুলশী থানা পুলিশ। আর জিজ্ঞাসাবাদে বের হয়ে আসছে ভদ্র চোর দলের নানা তথ্য। মূলত চুরি করা পণ্য তারা বিক্রি করতো অনলাইনে। আবার পরিচিত কিছু আত্মীয়-স্বজন ছিল, যারা এসব চোরাই পণ্য কিনতো। আটককৃত চোরদের বিরুদ্ধে খুলশী থানায় পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
 
খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রণব কুমার চৌধুরী জানান, টার্গেটকৃত বাসায় চুরি করতে যাওয়ার আগে চোর দলের সদস্যরা সব কিছু ভালোভাবে রেকি করে। এমনকি টার্গেটকৃত পরিবারের সব তথ্য জেনে নেয়। এরপর সুযোগ বুঝে একেবারে ভদ্র পোশাকে ওই ভবনের দারোয়ানকে মিথ্যা তথ্য দিয়ে টার্গেটকৃত বাসায় চলে যায়। শেষ পর্যন্ত কৌশলে বাসায় ঢুকে নিয়ে আসে সামনে থাকা মোবাইল ফোন, টেলিভিশন, ক্যামেরা, ল্যাপটপসহ মূল্যবান সব জিনিস।
 
পুলিশ জানায়, টার্গেটকৃত বাসায় ঢুকে চোরের দল নানা ধরনের নাটক সাজায়। কখনো বাসার মালিক পাঠিয়েছে। কখনো বা বলে ভুল করে বাসায় ঢুকে পড়েছে। অর্থাৎ যে বাসার দরজা খোলা পাবে সেই বাসার ড্রয়িং রুম থেকে জিনিস চুরি করে তারা। গত ৫ মাসে খুলশীর অন্তত ১০টি অভিজাত পরিবারে ঢুকে মোবাইল ফোন, টেলিভিশন এবং ল্যাপটপ ও ট্যাব চুরি করেছে এই চোরের দল।

এর মধ্যে কয়েকটি বাসার সিসিটিভি ফুটেজ পাওয়ার পর পুলিশ দলটির সন্ধানে নামে। শেষ পর্যন্ত তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। আর তাদের কাছ থেকেই উদ্ধার করা হয়েছে চুরির মালামাল।

অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর