শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
আজকের নবীন কর্মকর্তারাই হবেন ৪১ সালের সৈনিক : প্রধানমন্ত্রী ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর চরফ্যাশনে কোস্টগার্ডের অভিযানে আড়াই লাখ মিটার জাল আটক  বয়স্ক বাবা-মাকে না দেখলে জেল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে যারা ফখরুল-রিজভীসহ ১৩৫ জনের বিরুদ্ধে দুই মামলা ভোলায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালি ও আলোচনা সভা  সবার জন্য উন্মুক্ত থাকছে ‘কনসার্ট ফর ডিজিটাল বাংলাদেশ’ এসক্যাপ অধিবেশনে যোগ দিতে শেখ হা‌সিনা‌কে আমন্ত্রণ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির ন্যায়বিচার-নিরাপত্তা দাবি অক্সফামের কৃষি আধুনিক হলেই মাথাপিছু আয় বাড়বে: কৃষিমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস আজ মাওলানা ভাসানীর জন্মবার্ষিকী আজ কাল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের ‘ফুড চেইনের মাধ্যমে প্লাস্টিক শরীরে প্রবেশ করছে’ বিশাল জয়ে শুরু কুমিল্লার বঙ্গবন্ধু বিপিএল মিশন টাইম ম্যাগাজিনের ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ গ্রেটা থানবার্গ বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নে ৩০ কোটি ডলার দেবে এডিবি ‘বিদেশগামীদের জন্য চালু হচ্ছে প্রবাসী কর্মী বিমা’ প্রেষণে বদলি রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের ৯ জিএম
১১

ক্যান্সারজয়ী মনীষা কৈরালা এখন অন্যদেরও প্রেরণা

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  

 

 

 রোববার (১ ডিসেম্বর) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দু’টি ছবির একটি কোলাজ শেয়ার করেন মনীষা কৈরালা। কোলাজে দেখা যায়, প্রথম ছবিতে মনীষা হাসপাতালের শয্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। আর দ্বিতীয় ছবিতে এক পর্বতচূড়ায় আরোহণ করেছেন তিনি। ২০১২ সালের নভেম্বরে তার জরায়ুতে ক্যান্সার ধরা পড়ে। এরপর তিনি ৭ বছর লড়েছেন ক্যান্সারের সঙ্গে। এবার তিনি টুইটারে দু’টি ছবি শেয়ার করে ঘোষণা দিলেন, হ্যাঁ তিনি জয় করেছেন। বহু দুর্গম পথ পাড়ি দিয়ে ক্যান্সারকে জয় করে এখন অন্য ক্যান্সার রোগীদের প্রেরণা দিচ্ছেন বলিউড অঙ্গনের নেপালী অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা। 

কোলাজের সঙ্গে মনীষা লেখেন, ‘জীবনে বেঁচে থাকার দ্বিতীয় সুযোগের জন্য বন্ধুদের কাছে চিরকাল কৃতজ্ঞ। এটা সত্যিই এক বিস্ময়কর জীবন; আনন্দ ও সুস্বাস্থ্য নিয়ে বেঁচে থাকার দারুণ সুযোগ।’ 

মরণঘাতী ক্যান্সার জয় করার পর মনীষা তার স্মৃতিকথা নিয়ে ছোট আত্মজীবনী প্রকাশ করেছেন। এর নাম ‘হিলড: হাউ ক্যান্সার গেভ মি অ্যা নিউ লাইফ’। বইটিতে তিনি আলোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রে কীভাবে তার চিকিৎসা হয়েছে, অনকোলোজিস্টরা তার কেমন যত্ন নিয়েছেন এবং কীভাবে তিনি তার জীবনকে নতুন করে ঢেলে সাজিয়েছেন। 

শুধু তাই নয়। ক্যান্সারকে তার জীবনের একটি উপহার হিসেবে বিবেচনা করেন মনীষা। তিনি বলেন, আমি মনে করি আমার জীবনে একটি উপহার হিসেবে ক্যান্সার এসেছিল। এখন আমার দৃষ্টি আরও তীক্ষ্ণ, আমার মন আরও পরিষ্কার, আমার দৃষ্টিভঙ্গি আরও নতুন ও উন্নত। আমার চাপা-বিধ্বংসী ক্রোধ ও উদ্বেগকে শান্তিপূর্ণ অভিব্যক্তি হিসেবে রূপান্তর করতে পেরেছি।

ক্যান্সারজয়ী মনীষা ইতোমধ্যে চলচ্চিত্রে ফিরেছেন। নেটফ্লিক্সের ‘লাস্ট স্টোরিস’ এবং সম্প্রতি সঞ্জয় দত্তের ‘প্রস্থানম’ সিনেমায় তাকে দেখা গেছে। 

এই বিভাগের আরো খবর