• মঙ্গলবার   ২০ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৬ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
করোনায় দেশে ১১২ জনের মৃত্যু হেফাজত নেতা মামুনুল ৭ দিনের রিমান্ডে করোনায় দেশে ১০২ জনের মৃত্যু লকডাউনে ১ কোটি ২৫ লাখ পরিবার পাবে খাদ্য সহায়তা: কাদের হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক গ্রেফতার করোনায় দেশে আজও শতাধিক মৃত্যু হেফাজত নেতা জুবায়ের পাঁচদিনের রিমান্ডে হেফাজত নেতা মাওলানা জালাল গ্রেফতার দেশে করোনায় মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়াল সরবরাহ কম থাকায় চালের দাম বেশি : অর্থমন্ত্রী উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপানোর অপচেষ্টা করেছে বিএনপি: কাদের একদিনে করোনায় ৬৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮ নারায়ণগঞ্জে সহিংসতার ঘটনায় জামায়াত নেতা গ্রেফতার অবকাঠামো নির্মাণকাজ লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে: কাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলমান উন্নয়ন কাজ অব্যাহত রাখুন: তাজুল ইসলাম করোনায় একদিনে রেকর্ড ৮৩ জনের মৃত্যু হামলাকারীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে: রেলমন্ত্রী বিশ্বে শান্তি নিশ্চিত করাটাই চ্যালেঞ্জ: প্রধানমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় বরিশালে করোনা শনাক্ত ১১৫ বাজেটে স্বাস্থ্য ও কৃষি খাত গুরুত্ব পাবে: অর্থমন্ত্রী

খোশগল্প-সেলফি তোলায় শেষ বিএনপির কর্মসূচি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৭ মার্চ ২০২১  

জনসম্পৃক্ত কোনো ইস্যু না পেয়ে দিনে দিনে নিষ্ক্রিয় দলে পরিণত হচ্ছে বিএনপি। দলের অভ্যন্তরীণ কর্মসূচি (সভা-সমাবেশ) হলেও কার্যকর কোনো কিছুই হচ্ছে না। বরং সেসব কর্মসূচিতে খোশগল্প ও সেলফি তোলায় ব্যস্ত থাকেন নেতা-কর্মীরা।

জানা গেছে, সরকারের নির্বাহী আদেশে দ্বিতীয়বারের মতো সাজার স্থগিত পেয়েছেন দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। এ মুক্তির পেছনে বিএনপি কিংবা তারেক রহমান কোনো ভূমিকা রাখেননি। খালেদা জিয়ার ভাইয়ের পরিবার ভূমিকা রেখেছেন।

দলীয় সূত্রমতে, মাঠের রাজনীতিতে বিএনপি সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ দলে পরিণত হয়েছে। শুধু তাই নয়, দলটির রাজনৈতিক ভঙ্গুরতা এমন পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে যে, দলীয় কর্মসূচি বলতে কিছুই অবশিষ্ট নেই। মাঝেমধ্যে ‘লোক দেখানো’ রাজনৈতিক কর্মসূচির আহ্বান করা হয়, সেসব সভা-সমাবেশে নেতাকর্মীরা এসে ব্যস্ত হয়ে পড়েন খোশগল্প আর সেলফি তোলায়। বাকি যারা আসেন না, তারা সময় পার করেন নিজেদের ব্যবসা-বাণিজ্যে।

এদিকে সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পাওয়ায় দলের সক্রিয় রাজনীতি থেকে দূরে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। সুযোগটি কাজে লাগিয়ে নিজের আলাদা সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও খালেদার জ্যেষ্ঠপুত্র তারেক রহমান। তিনি টাকার বিনিময়ে অযোগ্য এবং হাইব্রিড নেতাদের পদ-কমিটি ও মনোনয়ন প্রদান করছেন। এর ফলে দলের পরীক্ষিত ও ত্যাগী নেতারা তারেকের স্বৈরতন্ত্রে বিরক্ত হয়ে দলবিমুখ হয়ে নিজেদের গুটিয়ে নিচ্ছেন। আবার কেউবা পদত্যাগ করে রাজনীতি থেকেই নিষ্ক্রিয় হয়ে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য বলেন, দলের অভ্যন্তরে কি হচ্ছে, তা কেবল আমরাই জানি। তারেক রহমানের দাপটে সবাই অতিষ্ঠ। কিন্তু পদবি হারানোর ভয়ে তার বিরুদ্ধে ভয়ে মুখ খোলা যাচ্ছে না। 

এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, জনগণের মন থেকে বিএনপি নামক রাজনৈতিক দলটার অস্তিত্বই মুছে গেছে। আর কেনই বা মুছবে না, তাদের অতীত অপকর্ম ছিল জঘন্য! দুর্নীতি, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, এতিমের টাকা আত্মসাৎ, মানুষ পুড়িয়ে হত্যা, কী করেনি বিএনপি। এজন্য বিগত দিনে অনুষ্ঠিত সবগুলো নির্বাচনে ব্যালট-ইভিএমের মাধ্যমে জনগণ বিএনপিকে দাঁতভাঙা জবাব দিয়েছে।