শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৮ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার একুশে পদক মেধা ও মনন চর্চার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত করবে : রাষ্ট্রপতি এনামুল বাছিরের পদোন্নতির আবেদন হাইকোর্টে খারিজ সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সুস্থ যুব সমাজের বিকল্প নেই : প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ ডাকঘর সঞ্চয়ের সুদহার পুনর্বিবেচনা করা হবে : অর্থমন্ত্রী মুঠোফোন প্রতারক জিনের বাদশা গ্রেফতার করোনাভাইরাস নিয়ে গুজবে কান দিবেন না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাগর তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও না করলে দেশ আরো এগিয়ে যেত : তথ্যমন্ত্রী শহীদ দিবসে জঙ্গি হামলার কোনো সম্ভাবনা নেই : ডিএমপি কমিশনার দেশে ব্রয়লারসহ কোন পশু-পাখির মধ্যে করোনা পাওয়া যায়নি : আইইডিসিআর বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশ এখন অনুকরণীয়: শ ম রেজাউল ওআইসিকে শক্তিশালী করতে চাই: ড. মোমেন
১০৪৫

গৃহকর্মীর বিজনেস কার্ড ভাইরাল, থামছে না চাকরির অফার

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০১৯  


আজকাল বাসা-বাড়ির কাজ করতে গৃহকর্মী খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন। সবখানেই প্রচুর চাহিদা তাদের। তবে, কষ্টসাধ্য এই পেশায় চাকরি হারানোর ঝুঁকিও রয়েছে যথেষ্ট। কোনো কারণে মনিবের মনোক্ষুণ্ন হলেই মুহূর্তেই চাকরি শেষ! এমন বিপদে পড়েই সম্প্রতি বিজনেস কার্ড ছাড়া হয়েছিল এক গৃহকর্মীর। সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায় সেটি। এরপর থেকে নতুন চাকরির অফার যেন থামছেই না। দেশের দূর-দূরান্ত থেকে ডাক আসছে তাদের বাসায় কাজ করে দেওয়ার জন্য।

সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে পাশের দেশ ভারতে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, ধনশ্রী শিনদে নামে এক নারী একদিন অফিস থেকে বাসায় ফিরে দেখেন গৃহকর্মী, যাকে তিনি গীতা মাসি বলে ডাকেন, তাকে খুব বিষণ্ন দেখাচ্ছে। কারণ, কিছুক্ষণ আগেই একটি চাকরি হারিয়েছেন তিনি। অর্থাৎ দরিদ্র এ গৃহকর্মীর মাসিক আয় হঠাৎ করেই চার হাজার রুপি কমে গেছে।

গীতাকে এই বিপদ থেকে উদ্ধারে নামেন একটি ডেভেলপার কোম্পানির সিনিয়র ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত ধনশ্রী। নিজের বুদ্ধি-অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে ওই গৃহকর্মীর জন্য তৈরি করেন চমৎকার একটি বিজনেস কার্ড। ওই কার্ডে গীতার ফোন নাম্বারসহ উল্লেখ করা হয় বিভিন্ন কাজের জন্য বিভিন্ন পরিমাণ অর্থের কথা। যেমন- ঘর ঝাড়ু দিতে ৮০০ রুপি, কাপড় ধুতে ৮০০ রুপি, রুটি বানাতে হলে এক হাজার রুপি প্রভৃতি।

প্রাথমিকভাবে এমন একশ’ বিজনেস কার্ড ছাপিয়ে বিলি করা হয় এলাকার বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে। কিন্তু, ছোট্ট এই পরিকল্পনা যে এত বড় ঝড় তুলবে এটা আশা করেননি ধনশ্রী বা গীতা মাসি কেউই। তাদের এই ঘটনার বিবরণ বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে শেয়ার করেন অস্মিতা জাভাদেকর নামে এক নারী। মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় ওই বিজনেস কার্ডের ছবি।

অস্মিতা জানান, এরপর থেকে গীতা মাসির মোবাইল ফোন অনবরত বেজে চলেছে। ভারতের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তার কাছে চাকরির অফার আসছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই ধনশ্রীর এমন অভিনব আইডিয়ার প্রশংসা করেছেন। ছোট কিন্তু কার্যকর পদক্ষেপের মাধ্যমে একজন দরিদ্র নারীর বিপদ দূর করায় অসংখ্য মানুষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাকে। 

এই বিভাগের আরো খবর