• বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১১ ১৪২৭

  • || ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তাকারী ২ পুলিশ বরখাস্ত করোনায় আরও ৩৯ জনের মৃত্যু ডিসেম্বরেই এইচএসসির ফল: শিক্ষামন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৮, শনাক্ত ২৪১৯ শিক্ষার্থী সাওদা হত্যাকাণ্ডে আসামির যাবজ্জীবন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৮, শনাক্ত ২০৬০ স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করাই বিএনপির গণতন্ত্র: কাদের প্রখ্যাত আলেম পীরজাদা গোলাম সারোয়ার সাঈদী আর নেই মানুষের কঙ্কালসহ গ্রেফতার বাপ্পী তিন দিনের রিমান্ডে শ্রাবন্তীকে কুপ্রস্তাবের অভিযোগে খুলনায় যুবক গ্রেফতার ডিসেম্বরের মাঝামাঝিতে বসবে পদ্মাসেতুর অবশিষ্ট ৪ স্প্যান: কাদের করোনায় আরও ৩০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩৬৪ ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় মজনুর যাবজ্জীবন ২০২১ সালের মধ্যে ১২৯ নতুন ফায়ার স্টেশন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এএসপি আনিসুল হত্যা মামলা: রিমান্ড শেষে কারাগারে আরও ৪ বিএনপির রাজনীতিতে হতাশা আর ব্যর্থতা ভর করেছে: কাদের শাহজালালে যাত্রীর কাছ থেকে ৫ কোটি টাকার স্বর্ণের বার উদ্ধার নেপালের বিপক্ষে সিরিজ জয় বাংলাদেশের বিএনপি বাসে আগুন দিয়ে অবলীলায় মিথ্যা বলছে: তথ্যমন্ত্রী ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহম ২৭ নভেম্বর

চরফ্যাশনে হত্যা মামলার ১৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৫ নভেম্বর ২০২০  

চরফ্যাশন উপজেলার ওসমানগঞ্জ গ্রামের রশিদ(৬৫) হত্যা মামলার রায় প্রদান করেছেন চরফ্যাশন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত। রবিবার দুপুর ১২ টায় বিচারক নুরুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন। মামলার মোট ১৮জন আসামীর মধ্যে ১৪জনের যাবজ্জীবন  এবং ৪জনকে বে-কসুর খালাস দেয়া হয়েছে। 

আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জমি সংক্রান্ত বিরোধ কে কেন্দ্র করে ৩০মে/২০১৩ইং তারিখে লালমোহন উপজেলা ও  চরফ্যাশন সিমান্তে ওচমানগঞ্জ গ্রামের আঃ রশিদকে নিজ বাড়ির দরজা কুঁপিয়ে হত্যা করে আসামীরা। হত্যা মালার আসামীরা অধিকাংশই বিএনপি সমর্থিত বলে জানা গেছে।

 এব্যাপারে নিহতের ভাই মো. হানিফ মিয়া চরফ্যাশন থানা একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। থানা থেকে আদালতে তদন্ত রিপোর্ট পেশ করার পর মহামান্য আদালত স্বাক্ষী প্রামাণের ভিত্তিতে ১৮জনের নাম আসামী সনাক্ত করেন। নিধারিত রায়ে তারিখ রবিবার ১১জন আদালতে উপস্থিত হয়। ৩জন পলাতক রয়েছে। ৪জনকে খালাস প্রদান করা হয়।

যাবৎ জীবন দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষণ থানার আলাউদ্দিন(৪৫), শাহাবুদ্দিন(৪৫) ও আঃ জলিল(৪৫),জাহানপুর ইউনিয়নের মো. কাঞ্চন মেস্তুরি(৫৫), কাঞ্চন পাটওয়ারী (৬০) , বাসু ওরফে বসু মাঝি(৪৫), ফজলে করিম(৪৫), ছাদেক মাঝি (৪৫), আঃ রহফ ওরফে হক মুন্সী (৫০) সহদর দুই ভাই মো.সিরাজ হাওলাদার(৪৫) ও সামসুদ্দিন হাওলাদার(৪৭) এবং লালমোহন উপজেলা রমাগঞ্জ ইউনিয়নের আবুল বাশার(৬০) নুরহোসেন(৪৫), নোমান(৩০)। এর মধ্যে আবুল বাশার, নুরহোসেন, নোমান পলাতক রয়েছে। যারা খালাস পেয়েছেন তাঁরা হলেন- হাজী মো.ইউনুছ পাটওয়ারী (৮৫), ঈমাম হোসেন(৩৫),এছহাক মাঝি(৭০), আবু বক্কর ওরফে টিটু(৫৫)। আসামীর মধ্যে  সামছুদ্দিন হাওলাদারের অতিরিক্ত ৫০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

নিহতের ছেলে ইউনুছ মিয়া বলেন, মামলার বাদী আমার চাচা হানিফ মিয়া ৪মাস পূর্বে মারা গেছে। আজ আমার পিতা রশিদ হত্যা মামলার সন্তুষ্ট জনক রায় হয়েছে। 

সরকার পক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত পিপি এড. আমিনুল ইসলাম সরমান বলেন, চরফ্যাশন এডিশনাল দায়রা জজ আদালত স্থাপনের পর রশিদ হত্যা মামলার এটি চাঞ্চকর প্রথম রায়। দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ এই আদালতের মাধ্যমে ন্যায় বিচার পেতে স্বক্ষম হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষ এতে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছেন।