• সোমবার   ২৫ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পাঁচ হাজার টেকনোলজিস্ট নিয়োগের ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর করোনা সংক্রমণে বাংলাদেশ কিছুটা ভালো অবস্থানে আছে: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭৩ আম্ফান : সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’, সাগরে ২ নম্বর সংকেত আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম করলে দলীয় পরিচয় দিলেও ছাড় হবে না : কাদের স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করলে ঘোর অমানিশা নেমে আসবে : সেতুমন্ত্রী
১৮

চীনে করোনা রোগী শূন্যের কোটায়

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর। চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে শুরু হয়েছিল নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। তবে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের হানায় সারাবিশ্ব যখন দিশেহারা, তখন এর উৎপত্তিস্থল চীনে এই প্রথম শূণ্যের কোটায় নেমে এসেছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।

শনিবার জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (এনএইচসি) এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করে যে, আগের দিন করোনায় চারজন নতুন আক্রান্ত হলেও গতকাল তা ছিল শূন্য। অবশ্য সাংহাই ও জিলিনের দুজনকে করোনা রোগী হিসেবে সন্দেহ করা হচ্ছে বলে জানায় তারা। উপসর্গ ছাড়া নতুন করোনা রোগীর সংখ্যা ৩৫ থেকে কমে ২৮ জনে নামার কথা জানিয়েছে এনএইচসি।

জানা গেছে, চীনের ভেতরে চলাফেলায় কড়াকড়ি আরোপ করায় গত মার্চ থেকে স্থানীয় সংক্রমণের হার কমতে থাকে। তবে হঠাৎ করে বিদেশফেরতদের মাধ্যমে ক্লাস্টার সংক্রমণ দেখা যায় জিলিন ও হেইলংজিয়াং প্রদেশে। ৮ এপ্রিল লকডাউন প্রত্যাহারের পর এই মাসে প্রথম করোনা রোগী পাওয়া যায় উহানে। তাতে দ্বিতীয় দফায় সংক্রমণ ঠেকাতে শহরের ১ লাখ ১০ হাজারের বেশি বাসিন্দার কোভিড-১৯ টেস্ট করায় কর্তৃপক্ষ।

কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার ফলে শুক্রবার প্রথমবার আক্রান্ত বা মৃত্যুর তালিকা থাকলো অপরিবর্তিত। এখন পর্যন্ত চীনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার ৯৭১ জন এবং মৃত্যু ৪ হাজার ৬৩৪ জন।

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর