• শুক্রবার   ০৫ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
৩ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগে অনুমোদন দিলেন প্রধানমন্ত্রী মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৫ জন, নতুন শনাক্ত ২৪২৩ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এসএসসির ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী
৪৬

ডিজিটাল পদ্ধতিতে জাহাজ ভিড়বে চট্টগ্রাম বন্দরে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারি ২০২০  

জাহাজ ভেড়ানোর (বার্থিং) পুরনো পদ্ধতির পরিবর্তে নতুন ডিজিটাল পদ্ধতি চালু করতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ। জেটিতে জাহাজ ভেড়াতে ৩৪ বছরের পুরনো নিয়ম উঠে গেলে শিপিং এজেন্টদেরকে আর বন্দর ভবনে দৈনিক বার্থিং মিটিংয়ে উপস্থিত থাকতে হবে না।

নতুন পদ্ধতিতে জাহাজ জেটিতে বার্থিং নিতে অনলাইনে এজেন্টদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই জাহাজ বার্থিং পেয়ে যাবে। তবে এখনো তা পরীক্ষামূলক পর্যায়ে রয়েছে। পূর্ণাঙ্গরূপে ডিজিটাল বার্থিং চালু হতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে। কারণ এখনো শিপিং এজেন্টগুলো তাদের জাহাজের সব ডাটা বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছে সরবরাহ করেনি। ফলে ডিজিটাল বার্থিংয়ে ব্যবহৃত সফটওয়্যারে জাহাজের ডাটা ইনপুট করা হয়নি।

বন্দর কর্তৃপক্ষ ও ব্যবহারকারীরা জানান, ডিজিটাল পদ্ধতিতে জাহাজ বার্থিং চালু হলে একদিকে সময় যেমন সাশ্রয় হবে, অপরদিকে কমবে ভোগান্তি। সহজ হবে আমদানি-রফতানি প্রক্রিয়াও । এতে বন্দর জেটিতে থাকা জাহাজ এবং বন্দর জলসীমায় থাকা সব জাহাজের তথ্য হালনাগাদ থাকবে। এ পদ্ধতিতে জাহাজের গড় অবস্থানও কিছুটা কমে আসবে। নতুন এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে অনলাইনে চট্টগ্রাম বন্দরে আসা জাহাজের তথ্য দেবেন শিপিং লাইন বা এজেন্টরা। এরপরই স্বয়ংক্রিয়ভাবে বার্থিংয়ের অনুমতি মিলবে।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (হারবার ও মেরিন) কমোডর শফিউল বারি বলেন, উন্নত দেশের সমুদ্র বন্দরে আগে থেকেই এই পদ্ধতি চালু রয়েছে। নতুন এই পদ্ধতিতে এখন ট্রায়াল রান বা পরীক্ষামূলক কাজ চলছে। সফটওয়্যার অপারেটিং বা অন্যান্য ক্ষেত্রে কোনো ভুল-ত্রুটি থাকলে তা সংশোধন করা হচ্ছে।

বন্দরে ডিজিটাল অনলাইন বার্থিং মনিটরিং সিস্টেম উদ্ভাবন করায় নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবক নির্বাচিত হয়েছেন চট্টগ্রাম বন্দর চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল জুলফিকার আজিজ। গত ৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের আইসিটি শাখার পক্ষ থেকে এই পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।

আইসিটি শাখার কর্মকর্তা সৈয়দ মোহাম্মদ অলিউর রহমান জানান, ডিজিটাল অনলাইন বার্থিং মনিটরিং সিস্টেমে বিদেশ থেকে বর্হিনোঙরে জাহাজ আসার পর মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে বন্দর কর্তৃপক্ষকে জানাবে। এরপর ফিরতি এসএমএসে কখন, কোন বার্থে জাহাজটি ভিড়বে, বন্দরের পাইলট কখন জাহাজে উঠবে এসব প্রয়োজনীয় তথ্য আদান-প্রদান করবে।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর