শুক্রবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৮ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার একুশে পদক মেধা ও মনন চর্চার ক্ষেত্র সম্প্রসারিত করবে : রাষ্ট্রপতি এনামুল বাছিরের পদোন্নতির আবেদন হাইকোর্টে খারিজ সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সুস্থ যুব সমাজের বিকল্প নেই : প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ ডাকঘর সঞ্চয়ের সুদহার পুনর্বিবেচনা করা হবে : অর্থমন্ত্রী মুঠোফোন প্রতারক জিনের বাদশা গ্রেফতার করোনাভাইরাস নিয়ে গুজবে কান দিবেন না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাগর তীরে উঁচু স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও না করলে দেশ আরো এগিয়ে যেত : তথ্যমন্ত্রী শহীদ দিবসে জঙ্গি হামলার কোনো সম্ভাবনা নেই : ডিএমপি কমিশনার দেশে ব্রয়লারসহ কোন পশু-পাখির মধ্যে করোনা পাওয়া যায়নি : আইইডিসিআর বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশ এখন অনুকরণীয়: শ ম রেজাউল ওআইসিকে শক্তিশালী করতে চাই: ড. মোমেন
৫৩

তিন ধাপে পাকিস্তান সফর করবে বাংলাদেশ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২০  

শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সফর নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছেছে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। সমঝোতা অনুযায়ী, তিন ধাপে পাকিস্তান সফর করবে বাংলাদেশ দল। প্রথম ধাপে পাকিস্তানে গিয়ে তিনটি টি-টুয়েন্টি খেলবে টাইগাররা। পরের ধাপে গিয়ে দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট এবং শেষ ধাপে গিয়ে দ্বিতীয় টেস্ট ও সফরের একমাত্র ওয়ান ডে ম্যাচটি মাঠে গড়াবে।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। পিসিবি’র ওয়েবসাইটে বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশ করা হয়েছে।

এই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, লাহোরে তিনটি টি-টুয়েন্টি ম্যাচ দিয়ে পাকিস্তান সফর শুরু হবে বাংলাদেশের। ২৪, ২৫ ও ২৭ জানুয়ারি এই তিনটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এরপর সফরের দ্বিতীয় পর্বে থাকবে দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টটি। ৭ থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি রাওয়ালপিন্ডিতে অনুষ্ঠিত হবে এই টেস্ট।

এরপর দীর্ঘ একটি বিরতি থাকছে সফরে। এই সময়ে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) অনুষ্ঠিত হবে, চা চলবে ২২ মার্চ পর্যন্ত। পিএসএল শেষে এপ্রিলের ৩ তারিখে সিরিজের একমাত্র ওয়ান ডে ম্যাচটি মাঠে গড়াবে করাচিতে। আর করাচিতেই সিরিজের শেষ ম্যাচ থাকছে দ্বিতীয় টেস্ট, যার তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে ৫ থেকে ৯ এপ্রিল।

পিসিবি’র চেয়ারম্যান এহসান মানি বলেন, আমরা দুই দেশের পক্ষ থেকে একটি সমঝোতায় উপনীত হতে পেরেছি, যা ক্রিকেট খেলা ও ক্রিকেট পাগল দুই জাতির জন্যই ভালৈা হবে। দুই দেশের মধ্যে সমঝোতায় সহায়তা করায় আইসিসি চেয়ারম্যান শশাংক মনোহরকেও আমি ধন্যবাদ জানাই।

পিসিবি’র প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেন, এটা দুই দেশের জন্যই উইন-উইন ফল এনেছে। সিরিজটি নিয়ে সব ধোঁয়াশা কেটেছে বলে আমি খুবই আনন্দিত।

দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড) ও পিসিবি’র অনড় অবস্থানের কারণে পাকিস্তানে বাংলাদেশের সিরিজ নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়। বিসিবি পুরো সিরিজ একসঙ্গে না খেলে ধাপে ধাপে খেলার পক্ষে অবস্থান নেয়। তবে পিসিবি’র দাবি ছিল, পুরো সিরিজ একসঙ্গেই খেলতে হবে। দফায় দফায় আলাপ-আলোচনাতেও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি দুই বোর্ড। সবশেষ বিসিবি সভাপতি জানিয়েছিলেন, বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে পাকিস্তানে খেলতে যাওয়ার অনুমতি মেলেনি।

ক্রিকেইনফো’র খবরে বলা হয়, এর মধ্যে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) গভর্ন্যান্স রিভিউ কমিটির বৈঠক ছিল। ওই বৈঠকের সাইডলাইনেই পিসিবি ও বিসিবি প্রধানকে নিয়ে আলোচনায় বসেন শশাংক মনোহর। সেই আলোচনা থেকেই এসেছে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত।

এই বিভাগের আরো খবর