শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১২ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
কোন সিপাহির বাঁশির হুইসেলে এদেশ স্বাধীন হয়নি - শ.ম রেজাউল করিম নাসিরুদ্দিন শাহ ও অনুপম খেরের বাকযুদ্ধ আকাশ থেকে মোবাইলে পদ্মাসেতুর ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী চীনের রহস্যময় ভাইরাস বাদুড় ও সাপ হয়ে মানবদেহে! `শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করি` এত গুণ পুদিনা পাতার? হাঁসের মাংসের কালিয়া দেশ গঠনে ক্যাডেটদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে-সেনাপ্রধান মুজিববর্ষ ঘিরে বিদেশিদের মধ্যেও আগ্রহ বাড়ছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাখি মেলা শিগগিরই মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরকে পেছনে ফেলবো: অর্থমন্ত্রী শিক্ষার অন্যতম উদ্দেশ্য মানবসম্পদ তৈরি: শিক্ষা সচিব মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্যেই আ’লীগ কাজ করে যাবে-শেখ হাসিনা সোলেইমানি হত্যার নিন্দা জানানোয় কসোভোতে নারীর কারাদণ্ড বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে অনিয়মিত পরীক্ষার্থী ২১ শতাংশ টুঙ্গিপাড়া যাত্রায় টোল পরিশোধ করলো আওয়ামী লীগ বিক্ষোভে জনসমুদ্র বাগদাদ, স্লোগানে কাঁপছে রাজপথ বিএনপি ভোট কারচুপির রাজত্ব সৃষ্টি করেছিল বলেই ইভিএম আনা হয়েছে পাকিস্তানকে ১৪২ রানের লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ বৈশ্বিক স্বাস্থ্যে এখনো ঝুঁকি নয় করোনা ভাইরাস: ডব্লিউএইচও
৬২

তেতুলিয়া নদীতে বেহুন্দির স্থাপনা উচ্ছেদ

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২০  

বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধিঃ

ভোলা বোরহানউদ্দিন সীমান্তবর্তী তেতুলিয়া নদীতে মৎস্য বিভাগ অভিযান চালিয়ে ৩টি বেহুন্দি জাল, ১২টি ড্রাম, ৩টি চরঘেরা জাল ও ১২টি বেহুন্দির স্থাপনা উচ্ছেদ করেন। বুধবার দুপুর হতে বিকাল পর্যন্ত গংগাপুর ইউনিয়ন এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। ভোলা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম আজহারুল ইসলাম ও বোরহানউদ্দিন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা এ.এফ.এম. নাজমুস সালেহীন এর নেতৃত্বে থানা পুলিশের সহযোগিতায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। 

এছাড়া মঙ্গলবার দরুন ও কাচারি বাজার এলাকায় ৩০টি ড্রাম ও ২০টি বেহুন্দির স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। জব্দকৃত বেহুন্দি জাল গুলো আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয়। 

এব্যাপারে বোরহানউদ্দিন মৎস্য কর্মকর্তা এ.এফ.এম. নাজমুস সালেহীন সত্ব্যতা স্বীকার করে বলেন, তেতুলিয়া ও মেঘনা নদীতে তাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। যেখানেই এসকল অবৈধ বেহুন্দি জাল দেখবে তা উচ্ছেদ করবে বলেও তিনি জানান।
 

এই বিভাগের আরো খবর