• বৃহস্পতিবার   ২৪ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ১০ ১৪২৮

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে যেন কেউ না খেলে: প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে ফের বিশ্ব নেতাদের সহযোগিতা কামনা আজ আওয়ামী লীগের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ২৪ জুন শর্তসাপেক্ষে কক্সবাজারে খুলছে হোটেল পরিকল্পিতভাবেই এগোচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী আগামী মাস থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ২০ হাজার টাকা: মন্ত্রী মঙ্গলবার থেকে সাত জেলায় লকডাউন, বন্ধ গণপরিবহন সেনাবাহিনীর অপারেশনাল সক্ষমতা বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী একসঙ্গে ঘর পেল ৫৩ হাজার অসহায় পরিবার, বিশ্বে নজিরবিহীন বিশ্ব শান্তি সূচকে সাত ধাপ এগোলো বাংলাদেশ ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনে অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলেন রাষ্ট্রপতি বিধিনিষেধ বাড়লো আরো এক মাস দেশের উন্নয়নে যেন কোনোভাবেই সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় রাষ্ট্রপতি কাজাখ রাজধানীতে ওআইসি সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যোগ দিবেন এসএসএফের দক্ষতা বৃদ্ধিতে সুযোগ সৃষ্টি করে দিচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী একটা করে বনজ, ফলজ ও ভেষজ গাছ লাগান: প্রধানমন্ত্রী করোনায় কোনো রকম রিস্ক না নিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী এয়ার মার্শাল র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরলেন নতুন বিমানবাহিনী প্রধান স্কুল-কলেজে ছুটি আবার বাড়ল গণতন্ত্রের মুক্তি দিবস ১১ জুন

নতুন আরেকটি মাদকের সন্ধান পেল পুলিশ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

তেল, মাখন আর সেদ্ধ গাঁজার নির্যাস দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে বিশেষ ধরনের মাদক ব্রাউনি। দেখতে হুবহু কেকের মতো মাদকটির গ্রাহক মূলত উচ্চবিত্তরা। ব্যবসায় জড়িত অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়পড়ুয়া দুই শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তারের পর গোয়েন্দা পুলিশ বলছে, এলএসডি নিয়ে তদন্ত করতে গিয়ে মিলেছে এই মাদকের সন্ধান।

দেখতে হুবহু কেক। কেক বানাতে যেসব উপাদান লাগে, তার সবই আছে এতে। তবে এটি বিশেষ ধরনের কেক। রয়েছে বাড়তি কিছু উপাদান। মেশানো হয়েছে তেল, বাটার আর সেদ্ধ গাজার নির্যাস। নাম গাঁজার কেক কিংবা ব্রাউনি। রাজধানীতে নতুন এই মাদকের সন্ধান পেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ।

পুলিশ বলছে, বিশেষ এই মাদকটি দীর্ঘদিন ধরে মাদকসেবীরা ব্যবহার করলেও এটি ছিল ধরাছোঁয়ার বাইরে। ভয়ংকর এলএসডি নিয়ে তদন্ত করতে গিয়ে সন্ধান মেলে এর।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের রমনা বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার এইচ এম আজিজুল হক বলেন, এলএসডি নামক একটা মাদক আমরা ধরেছি। আসামিদের নিয়ে যখন কাজ করছি তখনই তারা আমাদের জানিয়েছিল বিশেষ ধরনের মাদক দীর্ঘদিন ধরে চলছিল। গাজাটাকে তেল ও বাটারের সঙ্গে সিদ্ধ করে কেক তৈরি করেন।

রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে সাড়ে তিন কেজি ব্রাউনি উদ্ধারের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যারা নিজেরা সেবন করতে গিয়ে, একপর্যায়ে জড়িয়েছেন ভয়ংকর এই মাদকের ব্যবসায়।

পুলিশ বলছে, মাদকটি ব্যয়বহুল হওয়ায় সাধারণত উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানরাই এর মূল ভোক্তা। নগরকেন্দ্রিক জীবনের পার্টি কালচারে মাতোয়ারা তরুণদের মধ্যে ব্রাউনির জনপ্রিয়তা বেশ।

এইচ এম আজিজুল হক আরও বলেন, আমরা যাদেরকে ধরেছি। তারা উচ্চ পরিবারের সন্তান। এই ব্রাউনিগুলো তিন থেকে দশ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়। এটা খেলে এক সপ্তাহ পর্যন্ত নেশা থাকে।

এলএসডির মতো ব্রাউনিও অনলাইনে বিভিন্ন ক্লোজড গ্রপের মাধ্যমে কেনাবেচা হয় বলে তথ্য পাওয়ার দাবি পুলিশের।