• শুক্রবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৩ ১৪২৭

  • || ৩০ মুহররম ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, শনাক্ত ১৫৯৩ পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক কমানোর চিন্তা: অর্থমন্ত্রী সরকার ওজোনস্তর রক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে: পরিবেশ মন্ত্রী শামুকের পাশাপাশি ঝিনুকও সংরক্ষণ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪৩, শনাক্ত ১৭২৪ পাটকল শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধের কার্যক্রম শুরু তুরস্কে বাংলাদেশ চ্যান্সারি ভবন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৮১২ এবার দুদকের মামলায় ওসি প্রদীপ গ্রেপ্তার প্রধানমন্ত্রী কাল আঙ্কারায় বাংলাদেশ চ্যান্সেরির উদ্বোধন করবেন ২০২২ সালের মধ্যে ঢাকা-কক্সবাজার সরাসরি ট্রেন চলবে: রেলমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৪, শনাক্ত ১২৮২ শিক্ষার্থীদের আমরা এক হাজার করে টাকা দেব: প্রধানমন্ত্রী সিনহা হত্যা: জবানবন্দি শেষে কারাগারে চার পুলিশ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, শনাক্ত ১৮৯২ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামালের মা আর নেই মসজিদে বিস্ফোরণ: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭ মসজিদে বিস্ফোরণ: মৃত্যু বেড়ে ২৪ মসজিদে এসি বিস্ফোরণ: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭ দেশে একদিনে ৩৫ মৃত্যু, আক্রান্ত দুই হাজারের কম
৪৮৮

নান্দনিক শিল্পরূপে লালমোহন থানার সামনে আমগাছ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৯ জানুয়ারি ২০২০  

লালমোহন প্রতিনিধিঃ 

লালমোহন থানার সেই ঐতিহ্যবাহী স্মৃতিময় পুরনো আমগাছটি আর জীবিত নেই। গাছটি মরে যাওয়ায় একে নান্দনিক শিল্পরূপে সাজিয়েছেন লালমোহন থানা প্রশাসন।

এ আমগাছটিতে যেমন ধরতো আম। তেমনি উপজেলার বিভিন্ন দাগি আসামীদের সাজা দেয়া হতো এ গাছের সাথে বেঁধে। লালমোহন থানায় প্রবেশ করলে সকলের দৃষ্টি থাকতো আমগাছটির দিকে। কালের বিবর্তনে এ আমগাছটি পর্যায়ক্রমে মৃত্যুর দিকে ঝুঁকে পড়ে।

থানা প্রশাসনের উদ্যোগে গাছটিকে নান্দনিক শিল্পে রূপান্তিত করার সিদ্ধান্ত নেয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (লালমোহন সার্কেল) রাসেলুর রহমান জানান, এ আমগাছটি অনেক পুরনো, এখানকার ঐতিহ্য ছিল। এধরণের গাছ এ অঞ্চলে খুবই কম দেখা যায়। এজন্য আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি গাছের মূল যে অংশটি আছে সেই অংশটিকে নান্দনিক শিল্পে রূপান্তরিত করবো।

লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ মীর খায়রুল কবীর বলেন, আমি এ থানায় যোগদান করেই এ আমগাছটি দেখতে পাই। একটি থানার সামনে এধরণের আমগাছ থাকা অস্বাভাবিক। কিন্তুু কিছুদিন পর দেখলাম গাছটি পর্যায়ক্রমে মরে যাচ্ছে। আমরা সকলে উদ্যোগ নিলাম গাছটিকে রং করে নান্দনিক শিল্পে রূপান্তর করার। বর্তমানে আম গাছটিকে অনেক সুন্দর দেখাচ্ছে।

উপজেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর