• বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পাঁচ হাজার টেকনোলজিস্ট নিয়োগের ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর করোনা সংক্রমণে বাংলাদেশ কিছুটা ভালো অবস্থানে আছে: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭৩ আম্ফান : সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত
৩৬

পদ্মাসেতুর সবশেষ খুঁটির কংক্রিটিং আজ, বাকি শুধু ১৪টি স্প্যান

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২০  

আর বাকি রইলো না পদ্মাসেতুর কোন খুঁটি। সবশেষ ৪২ নাম্বার খুঁটির কংক্রিটিংয়ের মাধ্যমে শেষ হচ্ছে পদ্মাসেতুর খুঁটি নির্মাণকাজ। আর এটিই ছিল সেতু নির্মাণে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। মাঝখানে খুঁটি জটিলতার কারণে কাজ পিছিয়েছে এক বছরের বেশি সময়। এখন খুঁটি নির্মাণকাজ শেষ হলে আর বাকি থাকবে মাত্র ১৪টি স্প্যান বসানোর কাজ। যা এ বছরের আগস্ট মাসে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। এরপরই পুরো সেতু একসঙ্গে দৃশ্যমান হবে।

আজ সোমবার (৩০ মার্চ) সন্ধ্যার দিকে ৪২ নম্বর অর্থাৎ শেষ খুঁটির কংক্রিটের কাজ শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছে সেতু নির্মাণকারী মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি)।

পদ্মাসেতুর প্রকৌশলীরা জানান, মাঝ নদী ও মাওয়া প্রান্তে পদ্মাসেতুর ২২টি খুঁটিতে সবচেয়ে বেশি জটিলতা দেখা দিয়েছিল। প্রথমদিকে যে গভীরতার ধারণা নিয়ে কাজ এগুচ্ছিল বাস্তবে তার সঙ্গে মেলেনি। এ নিয়েই বিপত্তি বাধে সেতু নির্মাণে।

এ কারণে আটকে যায় ২২টি পিলারের কাজ। সবশেষে এমন একটি পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয় যাতে নদীর তলদেশে কৃত্রিম প্রক্রিয়ায় মাটি শক্ত করে পিলার গাঁথা যায়। এই বিশেষ ‘স্ক্রিন গ্রাউটিং’ পদ্ধতি প্রয়োগ করে সফলতাও পাওয়া যায়।

পদ্মা সেতুর আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ প্যানেল প্রধান অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী জানান, পাইপের ছিদ্র দিয়ে বিশেষ কেমিক্যাল নদীর তলদেশে পাঠিয়ে মাটি শক্ত করে তারপর সেখানে খুঁটি গাঁথা হয়েছে।

এর মধ্যে সবশেষ এই খুঁটিটি রয়েছে। যার কাজ আজ শেষ হবে কংক্রিটিং এর মাধ্যমে। এরপর আর পদ্মানদীতে সেতু খুঁটি নির্মাণের মত জটিল ও কঠিন কাজ থাকবে না বলে জানায় সেতু নির্মাণ কর্তৃপক্ষ।

পদ্মা সেতু প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, স্ক্রিন গ্রাউটিংএর মাধ্যমে ১১টি খুঁটি গড়ে তোলা হয়েছে। সবশেষ ৪২ নাম্বার খুঁটি এভাবে সম্পন্ন করা হল। যা এখন কংক্রিটিংয়ের মাধ্যমে শেষ হবে।

উন্নয়ন বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর