মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০   চৈত্র ১৭ ১৪২৬   ০৬ শা'বান ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় সরকার জনগণের পাশে আছে -প্রধানমন্ত্রী ছুটিতে কর্মস্থল ছাড়া যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন করোনা সংকটকালে জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ: কাদের আমি করোনায় আক্রান্ত হইনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত নেই : আইইডিসিআর পদ্মা সেতু‌তে বসলো ২৭তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৫০ মিটার সব পোশাক কারখানা বন্ধের নির্দেশ ভোলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নৌ-বাহিনীর টহল পবিত্র শবে বরাত ৯ এপ্রিল অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না : প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে আজ ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নিষেধাজ্ঞা অক্ষরে অক্ষরে পালন করুন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই খালেদা জিয়াকে মুক্তির সিদ্ধান্ত করোনা ছোঁয়াচে, এক মিটার দূরত্বে থাকার পরামর্শ
৬৫

পাল্টে গেল বগা লেকের পানির রঙ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

 

শান্ত জলের অপরূপ দৃশ্য দেখতে পর্যটকরা ভিড় করেন বান্দরবানের বগা লেকে। দেশের আকর্ষণীয় এ পর্যটনকেন্দ্রে যেতে খানিকটা ভয়ংকর পথ পাড়ি দিতে হয়। হুট করেই বগা লেকের পানির রঙ ঘোলা হয়ে যাওয়ায় হতাশ পর্যটকরা।
স্বচ্ছ বগা লেকের পানি থেকে কিছুটা দুর্গন্ধযুক্তও ছড়াচ্ছে। তাই এ পানি এখন আর ব্যবহার করা যাচ্ছে না। লেকের পানিতে হঠাৎ পরিবর্তন আসায় বসবাসকারী বম, মারমাসহ পাহাড়ি সম্প্রদায়ের জন্য অনেকটা দুর্ভোগ নেমে এসেছে। পর্যটকরা বলছেন, পানির রঙ যদি এভাবেই থাকে, তাহলে অনেকেই আসার আগ্রহ হারাবে।

গবেষকরা বলে থাকেন, আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ থেকে বগালেকের সৃষ্টি। আর এ কারণেই কয়েক বছর পর পর লেকের পানি ঘোলাটে হয়ে ফসফরাস যুক্ত হয়। এ সময় লেকের পানি ব্যবহার করা যায় না। তবে সপ্তাহখানেকের মধ্যেই ঘোলা পানি আবার স্বচ্ছ হয়ে ওঠে। তবে এটি তিন থেকে পাঁচ বছর পরপর হয়ে থাকে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

বম সম্প্রদায়ের ধর্মীয় নেতা রেভারেন্ট জারলম বম জানান, স্বচ্ছ পানি ঘোলা হয়ে যাওয়া পর্যটকদের কাছে বিস্ময়কর হলেও বম সম্প্রদায়ের কাছে এটি অনেক পুরনো ঘটনা। যখন বগালেকের পানি ঘোলা হয় তখন এ লেক থেকে প্রায় ৩০ কিলোমিটার দূরের রাইংখ্যং লেকের পানিও ঘোলা হয়ে থাকে বলে এমন কথা এলাকায় প্রচলিত রয়েছে।

বগা লেককে ড্রাগন লেক বলা হয়ে থাকে। সকালের উজ্জ্বল আলো যেমন বগা লেককে দেয় সিগ্ধ সতেজ রূপ। ঠিক তেমনি রাতের বেলায় দেখা যায় ভিন্ন এক মায়াবী হাতছানি। রাতের বগা লেক দিনের চেয়ে একেবারেই আলাদা। যদি রাতটি হয় পূর্ণিমার, তবে এটি হতে পারে আপনার জীবনের সেরা রাতের একটি।

বান্দরবান থেকে রুমা বাজারের দূরত্ব ৪৮ কিলোমিটার। সেখান থেকেই যেতে হয় বগা লেক। লোকাল বাস কিংবা চান্দের গাড়ি/জীপে করে রুমা বাজার যাওয়া যায়। বাসে যেতে হলে বান্দরবানের রুমা বাস স্ট্যান্ডে যেতে হবে। সেখান থেকে ১ ঘণ্টা পর পর বাস রুমার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।  রুমা বাজার পৌঁছে বগা লেক যাবার জন্য প্রথমে গাইড ঠিক করে নিতে হয়। অনুমোদিত যে কোনো গাইডকে নেয়া যায়।

এই বিভাগের আরো খবর