• শুক্রবার   ০৫ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪২৭

  • || ২১ রজব ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
করোনার টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে গবেষণা ও বিজ্ঞানের বিবর্তন অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী সীমান্তে হত্যাকাণ্ড দুঃখজনক: জয়শঙ্কর ২৪ ঘণ্টায় আরও সাতজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬১৯ বিএনপি এখন মায়াকান্না করছে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৬১৪ সুন্দরবনে বিষ দিয়ে মাছ ধরা বন্ধ করতে হবে: বনমন্ত্রী ৪ কোটি ডোজ করোনার টিকা সংগ্রহ করা হবে: জাহিদ মালেক ১০ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষে বাংলাদেশ: অর্থমন্ত্রী মানুষকে খাদ্য সরবরাহ-সময়মতো ভ্যাকসিন দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৭, শনাক্ত ৫১৫ মুক্তিযুদ্ধকে অসম্মান করেছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী ঢাবির ১২ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার দেশবিরোধী একটি মহল সরকার হটানোর ষড়যন্ত্র করছে: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৮, শনাক্ত ৫৮৫ মুশতাকের মৃত্যুর কারণ তদন্তে বেরিয়ে আসবে: তথ্যমন্ত্রী আজ থেকে ২ মাস ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ প্রেস ক্লাবে চরম ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে পুলিশ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বেসরকারি চিকিৎসা সেবা ব্যয় নির্ধারণ শিগগিরই: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাটকা সংরক্ষণে কাল থেকে ৬ জেলায় মাছ ধরা নিষিদ্ধ

প্রতিবেশী ১০ দেশের জন্য বিশেষ ভিসার প্রস্তাব দিলেন মোদি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

'কভিড-১৯ ব্যবস্থাপনা : অভিজ্ঞতা, ভালো অনুশীলন এবং অগ্রযাত্রা' শীর্ষক এক কর্মশালায় বক্তব্য দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রতিবেশী ১০ দেশের স্বাস্থ্যবিষয়ক নেতা, কর্মকর্তা ও স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের উপস্থিতিতে সেই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবারের কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, ভুটান, মালদ্বীপ, মরিশাস, নেপাল, পাকিস্তান, সিশিলি, শ্রীলঙ্কা ও ভারতের কর্মকর্তা ও বিশেষজ্ঞরা।
 
ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় লিখিত এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, করোনা মহামারি চলা অবস্থায় ভারতের স্বাস্থ্য খাত থেকে যেভাবে সহযোগিতা করা হয়েছে এবং সর্বাধিক জনবহুল এলাকার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সমন্বিত প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে, সে ব্যাপারে ভুয়সী প্রশংসা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

করোনা মহামারির মতো স্বাস্থ্যসংক্রান্ত জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় আন্তর্জাতিক মহলে চমকে দেওয়া প্রস্তাব সুপারিশ করেছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

ওই কর্মশালায় বক্তব্য দিতে গিয়ে একদিকে তিনি প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সহযোগী মনোভাব বজায় রাখার সুপারিশ করেন, অন্যদিকে জরুরি অবস্থায় স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের জন্য এক বিশেষ ভিসা প্রকল্পেরও প্রস্তাব করেছেন।

প্রতিবেশী দেশের নেতারা উদ্দেশ্য করে মোদি বলেন, গত এক বছরে করোনা মোকাবেলায় এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে স্বাস্থ্য-সহযোগিতা এক অভূতপূর্ব উচ্চতা অর্জন করেছে। করোনা টিকার বিকাশ এবং বিতরণের জন্যও এই সহযোগিতা ও সহমর্মিতার মনোভাব ধরে রাখতে হবে। 

এ ছাড়া করোনা মহামারির মতো স্বাস্থ্যসংক্রান্ত জরুরি পরিস্থিতিতে যেন এক দেশ থেকে অন্য দেশে, চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবাকর্মীরা স্বল্পসময়ে পৌঁছে যেতে পারেন, সে জন্য বিশেষ ভিসা প্রকল্পের বিষয়ে বিবেচনা করার পরামর্শ দেন তিনি।

মহামারি মোকাবেলায় তাৎক্ষণিক ব্যয়, ওষুধ, পিপিই এবং পরীক্ষার সরঞ্জামের খরচ বহনের জন্য কভিড-১৯ জরুরি প্রতিক্রিয়া তহবিল গঠনের কথাও বলেন নরেন্দ্র মোদি।

একে অন্যের কাছ থেকে অভিজ্ঞতা নেওয়াসহ পরীক্ষা, সংক্রমণ থামানো এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ভালো অনুশীলনের ব্যাপারেও শিক্ষা নেওয়া যেতে পারে বলে মনে করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

সূত্র : ইন্ডিয়া ব্লুমস।