• রোববার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৭

  • || ২০ রবিউস সানি ১৪৪২

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক নীতিমালা তৈরি করা হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ১০ জেলায় করোনার অ্যান্টিজেন টেস্ট উদ্বোধন করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: তথ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩১৬ বিদ্রোহী প্রার্থীদের পরবর্তীতে আর মনোনয়ন নয়: ওবায়দুল কাদের ঢাবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ: ছাত্র অধিকার পরিষদের তিন নেতা রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২১৯৮ বীর মুক্তিযোদ্ধা আতিক হত্যা মামলায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড ফাইজারের ভ্যাকসিন অনুমোদন দিলো যুক্তরাজ্য করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩১, শনাক্ত ২২৯৩ ঘরোয়া অনুষ্ঠানের কথাও পুলিশকে জানাতে হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সম্রাটের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৭ জানুয়ারি ভাস্কর্য নিয়ে উস্কানি ছড়ালে সরকার বসে থাকবে না: তথ্যমন্ত্রী চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা, ২৮ প্রতারক আটক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৯, শনাক্ত ১৭৮৮ ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদকপ্রাপ্ত ওস্তাদ শাহাদাত হোসেন খান আর নেই করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, শনাক্ত ১৯০৮ ভ্যাকসিনের জন্য ৫০ শতাংশ টাকা ছাড়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৭, শনাক্ত ২২৯২

প্রবাসীদের বিনিয়োগ বাড়াতে বন্ড ছাড়বে সরকার

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৭ অক্টোবর ২০২০  

প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনিয়োগ বাড়াতে একাধিক বৈদেশিক মুদ্রায় বন্ড ছাড়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। এরইমধ্যে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স ওপর ২ শতাংশ হারে প্রণোদনা দিচ্ছে সরকার।

সম্প্রতি এক বৈঠকে এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

বন্ডে বিনিয়োগ আকর্ষণে যেসব দেশে বাংলাদেশি শ্রমিক ও অভিবাসী বেশি আছে যেমন মধ্যপ্রাচ্য, মালয়েশিয়া, যুক্তরাজ্য, ইতালি এসব দেশে রোড-শো করা হবে। 

অর্থ মন্ত্রণালয় জানায়, বর্তমানে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ‘ওয়েজ আর্নার ডেভেলপমেন্ট বন্ড’, ‘ইউএস ডলার প্রিমিয়াম বন্ড’ ও ‘ইউএস ডলার ইনভেস্টমেন্ট বন্ড’ নামে তিন ধরনের বন্ড চালু রয়েছে। কিন্তু প্রচলিত তিনটি বন্ড-ই শুধুমাত্র ডলারে ক্রয় ও ভাঙানো যায়। এ পরিপ্রেক্ষিতে বন্ড তিনটি শুধু ডলারের হিসাবে সীমাবদ্ধ না-রেখে পাউন্ড ও ইউরো মুদ্রায়ও চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে অর্থ বিভাগ।

মন্ত্রণালয় আরো জানায়, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য প্রচলিত বন্ড তিনটিতে কোনো বিনিয়োগসীমা নির্ধারিত নেই। এসব বন্ডে বিনিয়োগের বিপরীতে প্রায় ১৬ শতাংশ হারে সুদ বা মুনাফা পেয়ে থাকেন প্রবাসীরা। ফলে, এ খাতে সুদ ব্যয়ে সরকারের একটি বড় অংক ব্যয় হয়। 

এমতাবস্থায় অভ্যন্তরীণ মুদ্রায় (টাকায়) প্রচলিত বন্ডগুলোর মতো প্রবাসীদের জন্য চালু বন্ডগুলোতেও সর্বোচ্চ বিনিয়োগসীমা থাকা দরকার বলে মনে করছে অর্থ বিভাগ। প্রাথমিকভাবে বন্ড তিনটির বিপরীতে বৈদেশিক মুদ্রায় সর্বোচ্চ ১ কোটি টাকার সম-পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করা যাবে বলে সভায় মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।