শনিবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১২ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
কোন সিপাহির বাঁশির হুইসেলে এদেশ স্বাধীন হয়নি - শ.ম রেজাউল করিম নাসিরুদ্দিন শাহ ও অনুপম খেরের বাকযুদ্ধ আকাশ থেকে মোবাইলে পদ্মাসেতুর ছবি তুললেন প্রধানমন্ত্রী চীনের রহস্যময় ভাইরাস বাদুড় ও সাপ হয়ে মানবদেহে! `শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বের কারণে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করি` এত গুণ পুদিনা পাতার? হাঁসের মাংসের কালিয়া দেশ গঠনে ক্যাডেটদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে-সেনাপ্রধান মুজিববর্ষ ঘিরে বিদেশিদের মধ্যেও আগ্রহ বাড়ছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাখি মেলা শিগগিরই মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরকে পেছনে ফেলবো: অর্থমন্ত্রী শিক্ষার অন্যতম উদ্দেশ্য মানবসম্পদ তৈরি: শিক্ষা সচিব মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্যেই আ’লীগ কাজ করে যাবে-শেখ হাসিনা সোলেইমানি হত্যার নিন্দা জানানোয় কসোভোতে নারীর কারাদণ্ড বরিশাল বোর্ডে এসএসসিতে অনিয়মিত পরীক্ষার্থী ২১ শতাংশ টুঙ্গিপাড়া যাত্রায় টোল পরিশোধ করলো আওয়ামী লীগ বিক্ষোভে জনসমুদ্র বাগদাদ, স্লোগানে কাঁপছে রাজপথ বিএনপি ভোট কারচুপির রাজত্ব সৃষ্টি করেছিল বলেই ইভিএম আনা হয়েছে পাকিস্তানকে ১৪২ রানের লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ বৈশ্বিক স্বাস্থ্যে এখনো ঝুঁকি নয় করোনা ভাইরাস: ডব্লিউএইচও
৯১

বঙ্গোপসাগরে ধরা পড়ল বিরল প্রজাতির ‘তিমি হাঙর’

প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০১৯  

বঙ্গোপসাগরে এক জেলের জালে ধরা পড়েছে এক বিশাল তিমি হাঙর মাছ। এই প্রজাতির মাছ সাধারণত গভীর মহাসাগরে বিচরণ করে। বঙ্গোপসাগরের পানিতে সংখ্যায় এই মাছ অত্যন্ত বিরল, নেই বললেই চলে।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে চাম্বল ইউনিয়নের বাংলাবাজার ফিশারিঘাটের এক জেলের জালে ধরা পড়েছে ২৫ মণ ওজনের এ হোয়েল শার্ক বা তিমি হাঙর।

জানা যায়, মাছটির সারা গায়ে ছোট ছোট অসংখ্য সাদা দাগ রয়েছে। এটির শরীর ধূসর রঙের। মাথা বিশাল ও চ্যাপ্টা আকৃতির। মাথার দু’পাশে বড়সড় দুটি ফুলকা রয়েছে। মাছটির দৈর্ঘ্য প্রায় ১৫ ফুট।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, মাছটির ওজন ২৫ মণ। এটি হোয়েল শার্ক বা তিমি হাঙর বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। গভীর মহাসাগরে এই মাছের বাস। বঙ্গোপসাগরে এই মাছ বাস করে না। কীভাবে এই মাছ বঙ্গোপসাগরে এল, সেটি ভাবার বিষয়।

তিনি বলেন, এ প্রজাতির মাছের পাখনাগুলোর থাইল্যান্ড, চীনের মতো দেশে ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। এসব দেশের মানুষ পাখনাগুলো দিয়ে মজাদার স্যুপ তৈরি করে খায়।

চাম্বল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুল হক চৌধুরী জানান, মাছটি আগে কখনো দেখিনি। গন্ডামারা বড়ঘোনা এলাকার মো. রিদোয়ান নামের এক জেলের জালে গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছটি ধরা পড়েছে।

রিদোয়ান বলেন, জালে ধরা পড়ার পর মাছটি ট্রলারের সঙ্গে বেঁধে তীরে নিয়ে আসা হয়। তীরে তুলে ট্রাকের সাহায্যে চট্টগ্রাম শহরের সদরঘাটে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু গায়ে পচন লাগায় মাছটি বিক্রি করা যায়নি।

এই বিভাগের আরো খবর