সোমবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১২ ১৪২৬   ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ করোনামুক্ত: আইইডিসিআর লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে দায়িত্ব পালন করতে বললেন রাষ্ট্রপতি নাঈমুল আবরার হত্যা : ৪ আসামিকে গ্রেফতারের নির্দেশ আইন মেনেই বিদেশি কম্পানিকে এদেশে ব্যবসা করতে হবে- প্রধান বিচারপতি অপ্রাপ্তবয়স্ক চার কোটি নাগরিককে এনআইডি দেবে ইসি বাকি এক হাজার কোটি টাকা তিন মাসের মধ্যে দিতে গ্রামীণফোনকে নির্দেশ পতাকার মর্যাদা ধরে রাখতে সেনা সদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান জুয়ার আসর থেকে আটক ২৬ দুই ইউনিভার্সিটিকে ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর পৌনে চার কিলোমিটার সারা দেশে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ইংরেজি উচ্চারণে বাংলা বলার সমালোচনা প্রধানমন্ত্রীর উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ একুশে পদক হাতে তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুক্রবার
১৫

বারবার সামরিক জান্তারা আমাদের নিষ্পেষিত করেছে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০২০  

 

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, স্বাধীনতার পর মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে। আমাদের স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণকে বাধাগ্রস্ত করা হয়েছে। সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে বাধা প্রদানে চক্রান্ত করা হয়েছে।

একই সঙ্গে আমাদের স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস জানতে দেওয়া হয়নি। এভাবে বারবার সামরিক জান্তারা আমাদের নিষ্পেষিত করেছে। তবুও আমরা আজ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। বঙ্গবন্ধুর যোগ্য উত্তরসূরি শেখ হাসিনার হাত ধরেই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।

শনিবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে দিনাজপুরের বিরল উপজেলা পরিষদ মুক্তমে আয়োজিত এক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। এ দিন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত বিরল উপজেলার দুই কৃতি সন্তান মেসবাহুল ইসলাম (পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়) ও মো. নূরুল ইসলামকে (ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়) গণসংবর্ধনা দেওয়া হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণের লক্ষ্য নিয়ে মানুষ নিজেদের জীবন বাজি রেখে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিল। আমাদের এ থেকে অনুপ্রাণিত হতে হবে, একজন দেশপ্রেমিক মানুষ হিসাবে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে। একই সঙ্গে দুই সচিবকেও দেখে অনুপ্রাণিত হতে হবে আমাদের। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে নিজেদের নিয়োজিত করতে হবে।

তিনি বলেন, আমি গত ১০ বছরে বিরল-বোচাগঞ্জের উন্নয়ন কাজে বারবার এই দুজন সচিবের সহযোগিতা চেয়েছি এবং পেয়েছি। আমাদের এই দুজন সচিব কর্মজীবনেও জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালনকালে অত্যন্ত সুনাম অর্জন করেছেন। আশা করি- আগামীতে সচিব হিসাবেও তারা সুনাম অর্জন করবেন।

তিনি আরও বলেন, দিনাজপুরের যে কোনো মানুষ দেশের অন্য কোথাও যদি প্রশংসিত হয় তাতে আমরা গর্ববোধ করি। একজন সমতল এলাকার মানুষ পার্বত্য চট্টগ্রামের মতো জায়গার নেতৃত্বে রয়েছেন। অপরজন আমাদের ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্ব দিচ্ছেন এই অঞ্চলের মানুষ- যা আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, একটি মন্ত্রণালয়ে অনেক কাজ, অথচ আমাদের সচিবদ্বয় শত ব্যস্ততার মাঝেও বিভিন্ন বিষয়ে এলাকার মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে আমাদের কৃতজ্ঞ করে তুলেছেন। আমরা শুধু বিরল-বোচাগঞ্জ নয় সমগ্র দিনাজপুরের উন্নয়নে তাদের পাশে চাই। এজন্য আমাদের যতটুকু পাশে থাকা দরকার আমরা তা থাকব।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি, সচিব পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত সংবর্ধিত বিরল উপজেলার দুই কৃতি সন্তান মেসবাহুল ইসলাম (পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়) ও মো. নূরুল ইসলাম (ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়)।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্বে ছিলেন বিরল পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ সবুজার সিদ্দিক সাগর। এছাড়া অনুষ্ঠান সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ত রায়।
গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মতিয়ার রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জিনাত রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাবের মো. সোয়াইব, অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ নাসিম হাবিব, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আব্দুল মোকাদ্দেস, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আবুল কাশেম অরু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন প্রমুখ।

এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিসহ সংবর্ধিত সচিবদ্বয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা, ক্রেস্ট ও সৌজন্য উপহার দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। সবশেষে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় অতিথিবৃন্দ শীতার্ত অসহায়-দরিদ্রদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।

এই বিভাগের আরো খবর