• শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পাঁচ হাজার টেকনোলজিস্ট নিয়োগের ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর করোনা সংক্রমণে বাংলাদেশ কিছুটা ভালো অবস্থানে আছে: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭৩ আম্ফান : সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত
২৯৪

ভোলায় বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেলো দশম শ্রেণীর ছাত্রী

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ভোলা প্রতিনিধি ॥
ভোলায় পুলিশের সহায়তা বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেলো দশম শ্রেনীর ছাত্রী। রবিবার (২ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডে  মোস্তফা বেপাড়ী বাড়ীতে মেয়েটির বিয়ে উপলক্ষ্যে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠিত হচ্ছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে বিয়ের সব আয়োজন বন্ধ করে দিয়ে মেয়েটিকে বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা করে। এসময় পুলিশ কনের বাবা কামাল হোসেন কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

পরে মেয়ের বয়স ১৮ বছর পূর্ন না হলে বিয়ে দিবেন না এই মর্মে অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করে তিনি আইনের হাত থেকে রক্ষা পান।
স্থানীয় সুত্রে জানাযায় যে, ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের মোস্তফা বেপাড়ীর বাড়ীর হোটেল কর্মচারী কামাল হোসেনের ২য় মেয়ে  হাফছা আক্তার (১৫) আফছা আল হেরা দাখিল মাদ্রাসায় দশম শ্রেনীর  ছাত্রী ।  বাল্য বিয়ে দেয়ার জন্য পাশ্ববর্তী  বাপ্তা ইউনিয়নের এক অটো ড্রাইভারের সাথে বিয়ে ঠিক করে মেয়ের পরিবার।  

বিয়ের  আগে রবিবার মেয়ের বাড়ীতে গায় হলুদ এর আয়োজন করে কনের পরিবার। বাল্য বিয়ের খবর পেয়ে স্থানীয় ভোলা মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক সুমন ও  মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের এপিসি প্রকল্প এর সিআর এফ মেয়ের বাড়ী গিয়ে হাজির হয়। পরে গায় হলুদ এর আয়োজন বন্ধ করে দেয়।  এসময় পুলিশ কনের বাবা কামাল হোসেন কে  আটক করে থানায় নিয়ে আসে। আর মেয়ে মা বাল্য বিয়ের কুফল বুঝতে পেরে মেয়েকে ১৮ বছর আগে বাল্য বিয়ে দিবেনা বলে প্রতিশ্রুতি দেন এবং মেয়েকে পড়াশোনা করাবে বলে জানায়। 

ভোলা থানার ওসি এনায়েত হোসেন জানায়,বাল্য বিয়ে রোধে আমরা পুলিশ প্রশাসন জিরোটলারেন্স। কোথাও কোন জায়গায় বাল্য বিয়ের কথা শুনলে আমরা পুলিশের পক্ষ থেকে বন্ধ করে দেই এবং পরিবারকে সচেতন করি বাল্য বিয়ে না দেয়ার জন্য।  আশাকরি সরকারের বাল্য বিয়েমুক্ত জেলা গড়তে পুলিশ প্রশাসন বড় ভূমিকা রাখবে।
 

ভোলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর