• বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পাঁচ হাজার টেকনোলজিস্ট নিয়োগের ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর করোনা সংক্রমণে বাংলাদেশ কিছুটা ভালো অবস্থানে আছে: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭৩ আম্ফান : সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’, সাগরে ২ নম্বর সংকেত আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম করলে দলীয় পরিচয় দিলেও ছাড় হবে না : কাদের
১৭৩

ভোলায় ৭ প্রতিষ্ঠানের জরিমানা, কোয়ারেন্টিন শেষ ২৩৬ জনের

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩০ মার্চ ২০২০  

 

ভোলায় প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে দোকান খোলা রাখার অভিযোগে ৭ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১৫ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। 
সোমবার (৩০ মার্চ) দুপুরে শহরের মহাজপট্রি ও সদর রোডসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জিমরান মো. সায়েদ এ জরিমানা আদায় আদায় করেন।  
জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার আকিব ওসমান জানান, জরুরি ওষুধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান ব্যাতিত অন্যসব দোকান বন্ধ করে দেয় জেলা প্রশাসন। কিন্তু কিছু ব্যবসায়ী নিদের্শ অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে ভ্রাম্যমান আদালত। 
এদিকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন শেষ হওয়ায় ২৩৬ জনকে ছাড়পত্র দিয়েছে স্বাস্ত্য বিভাগ। এছাড়াও নতুন ৬ জন সহ এখনো হোম কায়ারেন্টিনে রয়েছে ১৮৯ জন। 
হোম কোয়েরেন্টিনে থাকা প্রবাসীদের মধ্যে সদরে ৪৬ জন, দৌলতখানে ২১ জন, বোরহানউদ্দিনে ২০জন, লালমোহনে ১৭জন, তজুমদ্দিনে ৪৪ জন ও মনপুরা উপজেলায় ১৬জন। 
অন্যদিকে হোম কোয়ারেন্টিন শেষ হয়েছে এমন প্রবাসীদের মধ্যে সদরে ৭৬ জন, দৌলতখানে ২৮ জন, বোরহানউদ্দিনে ২৭জন, লালমোহনে ২৭জন, চরফ্যাশনে ৩৬ জন, তজুমদ্দিনে ২৭ জন ও মনপুরা উপজেলায় ১৬ জন।
ভোলার সিভিল সার্জ ডা. রতন কুমার ঢালী এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, জেলায় এখন পর্যন্ত করোনা সার্বিক পরিস্তিতি ভালো রয়েছে, জেলার সকল হাসপাতালে পিপিই সরবরাহ করা হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সর্বমোট ৪১১ পিপিই পেয়েছে,  ওই সব পিপিই ব্যবহার করছে চিকিৎসক ও নার্সরা।
অপরদিকে দরিদ্রদের ঘরে ঘরে খাদ্য সহায়তা পৌছে দিচ্ছে   জেলা প্রশাসন ও পৌরসভায়। করোনা ভাইরাস সংক্রামন প্রতিরোধে জন সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ভোলায় সাবান বিতরন ও স্যানাটাইজার দিয়ে হাত ধোয়া কার্যক্রম করছে একদল সেচ্চাসেবী সংগঠন।
অন্যদিকে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করতে নৌ বাহিনী ও পুলিশের টিম বিভিণœ এলাকায় টহল দিচ্ছে। 

ভোলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর