শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
বিপিএলে প্রথম শিরোপার স্বাদ পেলো রাজশাহী আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা যাবে প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা আমরা ক্রসফায়ারকে সাপোর্ট করতে পারি না : ওবায়দুল কাদের পোশাক রপ্তানিকে ছাড়িয়ে যাবে আইসিটি : জয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল তজুমদ্দিনে জলদস্যুদের হামলায় ৪ জেলে গুলিবিদ্ধ, আটক ৪ বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্বে ময়দানে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে বাংলাদেশ: সংসদে প্রধানমন্ত্রী রিফাত হত্যা : দুই আসামি জামিনে মুক্ত দুর্নীতি মামলা : বিএনপি প্রার্থী ইশরাকের বিচার শুরু কাদেরের বাইপাস পরবর্তী স্বাস্থ্যের উন্নতি, দেশে ফিরছেন রাতেই  এসডিজি অর্জনে বাংলাদেশ সঠিক পথে রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী আবুধাবি থেকে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী সরকারের জনপ্রিয়তা অনেক বেড়েছে: আইআরআই ওমানের সুলতানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোকবার্তা আবুধাবি থেকে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী ভোলায় অপহৃত দুই জেলে উদ্ধার, দস্যু আটক রিট খারিজ, নির্ধারিত তারিখেই হচ্ছে ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন
৯১

রক্ত আমাশয় সারাবে চালতার কচি পাতা

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২০  

টক ফল চালতার আচার, চাটনি, টক ডাল অনেকেরই প্রিয় খাদ্য। পাকা ফল পিষে নিয়ে লবণ-মরিচ দিয়ে মাখালে তা বেশ লোভনীয় হয়। চালতা ফলের যে অংশ খাওয়া হয় তা আসলে ফুলের বৃতি। 

প্রকৃত ফল বৃতির আড়ালে লুকিয়ে থাকে।এ ফলে রয়েছে ক্যালসিয়াম, শর্করা, বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন বি, ভিটামিন সি, থায়ামিন, রিবোফ্লোবিন ও আমিষের মতো নানা ধরণের স্বাস্থ্য উপকারী উপাদান। এবার জেনে নেয়া যাক চালতার কিছু পুষ্টিগুণ-

> চালতা ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, আয়রন, ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’-এর ভালো উত্‍স।

> চালতা পেটের নানা অসুখ প্রতিরোধে সহায়তা করে। ডায়রিয়া সারাতে কাঁচা চালতার রসের তুলনা নেই।

> রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল ও ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে চালতা।

> ঠাণ্ডা ও কাশির জন্য পাকা চালতার রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়া যায়।

> কিডনির নানা রোগ প্রতিরোধেও সহায়তা করে চালতা।

> প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ থাকায় এই ফল স্কার্ভি ও লিভারের রোগ প্রতিরোধ করে।

> নিয়মিত এই ফলটি খেলে হার্টের বিভিন্ন অসুখের ঝুঁকি কমে।

> এই ফলে রয়েছে অ্যন্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান যা মুখের ভেতরে বাস করা ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে। যার ফলে মুখের বাজে গন্ধ দূর হয়।

> এই ফলটি খেলে নারীর তলপেটের ব্যথা মুহূর্তেই কমে যায়।

রূপ চর্চায় চালতা

> কাঁচা চালতা পানি সঙ্গে মিশিয়ে চুলের গোড়ায় নিয়মিত লাগালে চুল পড়া বন্ধ হয়। 

> কাঁচা চালতার রসের সঙ্গে পেঁয়াজের রস মিশিয়ে সপ্তাহে দুবার চুলের গোড়ায় লাগালে খুশকি দূর হয়ে যাবে।

> চালতার রসের সঙ্গে চালের গুঁড়া মিশিয়ে স্ক্রাবার হিসেবে ব্যবহার করলে মরা কোষ দূর হয়। পাশাপাশি ত্বক হয়ে ওঠে উজ্জ্বল ও কোমল।

> চালতার রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে তাতে তুলো ভিজিয়ে ত্বকে লাগান। দশ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ত্বক বলিরেখামুক্ত থাকবে।

> চালতার রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে ত্বকের কালো অংশে লাগান। আঙুল দিয়ে হালকা ম্যাসাজ করুন ১০ থেকে ১৫ মিনিট। এরপর ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এর ব্যবহারে ত্বকের কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে।

পাতা ও মূলের উপকারিতা : শুধু ফল নয়, চালতার মূল ও পাতারও রয়েছে ওষুধিগুণ। রক্ত আমাশয় গাছের কচি টাটকা পাতা বেটে তার রস এক কাপ ঠাণ্ডা পানিতে মিশিয়ে নিন। দিনে দুবার খেলে এই সমস্যার উপশম ঘটবে। মচকে গিয়ে ব্যথা পেলে সেখানে চালতা গাছের মূল ও পাতা পিষে প্রলেপ দিলে ব্যথা কমে যায়।

সতর্কতা: দিনে ১০০ গ্রামের বেশি এই ফলটি না খাওয়াই উত্তম। অতিরিক্ত খেলে ডায়রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ভালো ফলাফল পেতে চালতা গাছের পাতার রসের সঙ্গে ইসুবগুলের ভুষি মিশিয়ে খেতে পারেন। গর্ভবতী ও স্তন্যদানকারী নারীরা এই ফল খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। 

এই বিভাগের আরো খবর