• সোমবার   ২৫ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী পাঁচ হাজার টেকনোলজিস্ট নিয়োগের ঘোষণা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর করোনা সংক্রমণে বাংলাদেশ কিছুটা ভালো অবস্থানে আছে: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১২৭৩ আম্ফান : সমুদ্রবন্দরে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্ফান’, সাগরে ২ নম্বর সংকেত আজ শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম করলে দলীয় পরিচয় দিলেও ছাড় হবে না : কাদের স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করলে ঘোর অমানিশা নেমে আসবে : সেতুমন্ত্রী
৪৪

রাজধানীতে অজ্ঞান ও মলমপার্টির দৌরাত্ম, ৫ বিএনপিকর্মী গ্রেফতার

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  

চলমান করোনা সংকটেও থেমে নেই বিএনপি নেতাদের অপকর্ম। তারই ধারাবাহিকতায় এবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরের আসাদগেট এলাকা থেকে অজ্ঞান ও মলমপার্টি চক্রের সঙ্গে যুক্ত বিএনপির পাঁচ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

আটকরা হলেন- কালু মিয়া, মিলন হাওলাদার, রিপন মিয়া, আলিয়ার রহমান ও দিদার হোসেন। তারা বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর এইচএম পারভেজ আরেফিন বলেন, সোমবার (১৮ মে) দিবাগত রাতে মোহাম্মদপুরের আসাদগেট এলাকায় গোপনে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে অজ্ঞান করার বিভিন্ন মলম, তরল পদার্থ ও ওষুধ জব্দ করা হয়।

তিনি আরো বলেন, আসাদ গেট এলাকায় র‌্যাবের একটি টহল দেওয়ার সময় কয়েকজনের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হয়। পরে তাদের আটক করা হয় এবং উদ্ধার করা হয় ওষুধ, তরল পদার্থ এবং মলম। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

প্রসঙ্গত, উৎসব-পার্বণ এলেই অপরাধী চক্রের এসব সদস্যরা তরল জাতীয় মলম সাধারণ পথচারীদের চোখে-মুখে ছিটিয়ে সবকিছু ছিনিয়ে নিতো। আবার কখনো বা ডাব কিংবা অন্য খাবারের সঙ্গে ওষুধ মিশিয়ে মানুষকে অজ্ঞান করে সর্বত্র লুট করতো।

আসন্ন ঈদ উপলক্ষে মার্কেট ও আশপাশের এলাকায় এই চক্রের আনাগোনা বেড়ে যায়। সন্ধ্যায় মার্কেট থেকে বাড়ি ফেরা মানুষদের টার্গেট করত চক্রটি। আটককৃতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা রয়েছে বলে র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর