মঙ্গলবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১২ ১৪২৬   ০১ রজব ১৪৪১

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় জগো বাহিনীর প্রধানের ফাঁসি, ১১ জনের যাবজ্জীবন এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ করোনামুক্ত: আইইডিসিআর লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে দায়িত্ব পালন করতে বললেন রাষ্ট্রপতি নাঈমুল আবরার হত্যা : ৪ আসামিকে গ্রেফতারের নির্দেশ আইন মেনেই বিদেশি কম্পানিকে এদেশে ব্যবসা করতে হবে- প্রধান বিচারপতি অপ্রাপ্তবয়স্ক চার কোটি নাগরিককে এনআইডি দেবে ইসি বাকি এক হাজার কোটি টাকা তিন মাসের মধ্যে দিতে গ্রামীণফোনকে নির্দেশ পতাকার মর্যাদা ধরে রাখতে সেনা সদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান জুয়ার আসর থেকে আটক ২৬ দুই ইউনিভার্সিটিকে ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর পৌনে চার কিলোমিটার সারা দেশে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ইংরেজি উচ্চারণে বাংলা বলার সমালোচনা প্রধানমন্ত্রীর উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী আসন্ন সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা নেই : বিদ্যুৎ বিভাগ
৫৯২

শীতে পা ফাটা রোধ করার সহজ উপায়

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০১৯  

শীত এলে অনেকেরই পায়ের গোড়ালির নিচের অংশ ফাটা দেখা যায়। শুষ্ক আবহাওয়ায় ত্বকের তাপমাত্রা কমে গিয়ে গোড়ালি ফেটে যেতে পারে। আবার শরীরের অন্য অঙ্গের ন্যায় পায়ের যত্নও নেওয়া হয় না। এই অবহেলা থেকেও পায়ের গোড়ালি শক্ত হয়ে ফাটল ধরে। অনেক সময় এই ফাটল থেকে রক্তও ঝরতে পারে। এ থেকে পায়ে ইনফেকশন হতে পারে। যা অনেক কষ্টদায়ক। 

পা ফাটা নিরাময় করতে অনেকেই আস্থা রাখেন বিভিন্ন ক্রিমের উপর। এতে প্রাথমিকভাবে কিছুটা উপকার মিললেও পরবর্তীতে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াসহ নানা সমস্যা হতে পারে। তাই সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে পা ফাটা রোধ করতে পারলে পরবর্তীতে কোন সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। এবার পা ফাটা রোধে প্রাকৃতিক কিছু উপায় সম্পর্কে জেনে নিন...

চাল, ভিনেগার ও মধুর মিশ্রণ
পা ফাটা রোধে এই পদ্ধতিটি দারুন কার্যকরী। এর জন্য প্রয়োজন হবে ২/৩ চা চামচ চাল, সাদা ভিনেগার ও মধু। প্রথমে চাল ভিজিয়ে গুঁড়া করে নিন। এরপর এতে পরিমাণ মত ভিনেগার ও মধু দিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। হাল্কা কুসুম গরম পানিতে ১০-১৫ মিনিট পা ভিজিয়ে রেখে ভেজা অবস্থায় ফাটা অংশে ঘন পেস্টটি ভালো করে ম্যাসাজ করবেন। ম্যাসাজ করে রেখে দিন ১০ মিনিট। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে মুছে নিন পা। তারপর খানিকটা অলিভ অয়েল গরম করে পায়ে ম্যাসাজ করুন। সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার এভাবে ব্যবহার করতে পারলে পা ফাটা রোধ করা যাবে।

কলা ও নারিকেলের মিশ্রণ
একটি কলা টুকরো করে এর সঙ্গে নিন তাজা নারিকেলের ৩/৪টি খণ্ড। এ দুটি একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে পারেন। এরপর এই মিশ্রণটি পায়ে লাগিয়ে নিন। বিশেষ করে ফাটা স্থানে ভালো করে লাগাবেন। তারপর শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে পা ধুয়ে ফেলুন। যদি আপনার হাতের কাছে তাজা নারিকেল না থাকে তবে একটি কলা পিষে এর সঙ্গে ২/৩ চা চামচ নারিকেল তেল মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে পায়ে লাগালেও উপকার পাবেন।