• রোববার   ২২ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৯

  • || ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
রূপপুর মেটাবে বিদ্যুতের চাহিদা, দেবে লাভও দ্রব্যমূল্য নিয়ে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ৪ দফা প্রস্তাব অবিলম্বে বৈশ্বিক সরবরাহ চেইন স্বাভাবিক করার আহ্বান পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিবেশবান্ধব: প্রধানমন্ত্রী খালেদাকে পদ্মায় ফেলতে আর ইউনূসকে চুবিয়ে তুলতে বললেন শেখ হাসিনা কক্সবাজার হবে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের রিফুয়েলিং পয়েন্ট কক্সবাজারে যত্রতত্র স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে কউক’র নতুন ভবনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর টোল নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি আওয়ামী লীগ সরকার আছে বলেই সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে- প্রধানমন্ত্রী ওপেনিংয়ে চতুর্থ সেরা জুটি গড়ে ফিরলেন জয়, তামিমের সেঞ্চুরি নিত্যপণ্যের দাম কেন চড়া, জানালেন প্রধানমন্ত্রী স্বদেশ প্রত্যাবর্তন: শেখ হাসিনা দেশের মানুষের শেষ ভরসাস্থল শেখ হাসিনা বাঙালি জাতির নিরাপদ আশ্রয়স্থল শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি চার দশকেরও বেশি সময় শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে আ.লীগ উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি খাদ্য সাশ্রয় করুন: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাধীনভাবে সরকারের সমালোচনা করতে পারে: প্রধানমন্ত্রী টাকা অপচয় করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

ভোলায় নতুন করে জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসাবে দায়িত্ব নিচ্ছেন আবদুল মমিন টুলু

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৮ এপ্রিল ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলা জেলা পরিষদের সদ্যবিদায়ী চেয়ারম্যান আবদুল মমিন টুলু জেলা পরিষদের নতুন করে প্রশাসক হিসাবে দায়িত্ব নিচ্ছেন। বুধবার দুপুরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম মন্ত্রীর বরাত দিয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. হায়দার আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেন। বৃহস্পতিবার সকালে নব নিযুক্ত প্রশাসক ভোলা জেলা পরিষদ এসে নতুন করে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন। সম্প্রতি ৬১টি জেলা পরিষদের মেয়াদ ৫ বছর উত্তীর্ণ হওয়ায় পরিষদগুলো বিলুপ্ত করে সরকার।

এদিকে আবদুল মমিন টুলু জেলা পরিষদের প্রশাসক হিসাবে নতুন করে দায়িত্ব নেয়ায় খুশী ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা। দলের বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দররা এই খবরে আনন্দ প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। একই সাথে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক সংগঠন, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরাও খুশী হয়েছেন।

আলহাজ্ব আবদুল মমিন টুলু একজন সুশীল রাজনীতিবিদ, যিনি সততা ও যোগ্যতা নিয়ে  দায়িত্ব পালন করছেন। দীর্ঘকাল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে যোগ্যতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। দলের দুর্দিনে ত্যাগ তিতিক্ষার মাধ্যমে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি ১৯৫৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর ভোলার ঐতিহ্যবাহী মিয়াজী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মরহুম ডাক্তার তোফাজ্জল হোসেন। ভোলা সরকারি স্কুল থেকে এসএসসি, ভোলা সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি ও ১৯৭৩ সালে বিএ পাস করেন। ১৯৭৮ সালে তিনি সাহিদা আক্তারের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তারা দুই কন্যার জনক জননী। ২০০০ সালে হজব্রত পালন করেন। তিনি ভারত, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া, আমেরিকা, ব্রিটেন, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, সৌদি আরবসহ অনেক দেশ ভ্রমণ করেছেন।

আবদুল মমিন টুলু ১৯৬৮ সালে স্কুলে পড়াকালীন অবস্থায় ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত হন। ৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ১৯৭২ সালে ভোলা কলেজের নির্বাচিত ভিপি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮২ সালে জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর স¤পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৮৬ সালে সাধারণ সম্পাদক হন। ৯৪ থেকে ২০০১ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। ২০০৬ থেকে অদ্যবধি আওয়ামী লীগ ভোলা জেলা সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন। বিগত এক দশক যাবত জেলা পরিষদের প্রশাসক ও চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি চেম্বার অফ কমার্স, রেড ক্রিসেন্ট, ডায়াবেটিক সমিতিসহ বেশকিছু সামাজিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতিসহ গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে রয়েছেন। একজন সৎ, যোগ্যও সুবিবেচক রাজনীতিবিদ হিসেবে তার সুখ্যাতি রয়েছে।

স্থানীয় সরকার কাঠামোর ৪টি স্তরের অন্যতম প্রধান একটি স্তর হচ্ছে জেলা পরিষদ। দেশের সকল জেলায় সুপ্রাচীন আমল থেকেই জেলা পরিষদ জনসাধারণের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। নিষ্কীয় জেলা পরিষদকে আবদুল মমিন টুলু ভোলা জেলার ৪ এমপি, উপজেলার চেয়ারম্যান,ও অন্যান্যজনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় জেলা পরিষদের কার্যক্রমে গতিশীল করেছেন। পাশাপাশি তার বিভিন্ন মেয়াদে দায়িত্বে থাকার ফলে ভোলা জেলার সকল উপজেলায় জেলা পরিষদের উন্নয়নে ছোয়া লেগেছে। উল্লেখ্য ২০১৭ সালে ২৮ ডিসেম্বর ভোলা জেলা পরিষদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন আবদুল মমিন টুলু।