• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪৩০

  • || ১৫ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে বিচারকদের ক্ষমতার অপব্যবহার রোধকল্পে খেয়াল রাখার আহ্বান মিউনিখ সফরে বাংলাদেশের অঙ্গীকার বলিষ্ঠরূপে প্রতিফলিত হয়েছে পবিত্র রমজানে নিত্যপণ্যের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী

আওয়ামী লীগ ১৪ বছরে বিএনপির উপর কোন অত্যাচার নির্যাতন করেনি: তোফায়েল আহমেদ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১০ আগস্ট ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য, সাবেক বানিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ ২০০৮ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত টানা ১৪ বছর ক্ষমতায় থাকলেও বিএনপির উপর কোন অত্যাচার নির্যাতন করেনি। অথচ বিএনপি ২০০১ সালে ক্ষমতায় থাকাকালীন আওয়ামী লীগের কর্মীরা বাড়িতে থাকতে পারেনি। এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়িয়েছে। আওয়ামী লীগ সেই রাজনীতি করেনা বলে তিনি জানান। সোমবার (০৮ আগস্ট) সন্ধ্যায় ভোলা সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নকর্মীদের সাথে সৌজন্য সফর করা শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিমকালে তিনি এসব কথা জানান।

এসময় তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, ভোলায় পুলিশের সাথে সংঘর্ষের জন্য মূল কারণ বিএনপি। তারা পুলিশের উপর আকস্মিক হামলা করেন। বাধ্য হয়ে পুলিশ আত্মরক্ষার জন্য গুলি করে। এই ঘটনায় দুজন মারা যায়, এর জন্য আমি দু:খ প্রকাশ করছি। বিএনপির হামলার ঘটনায় অনেক পুলিশ সদস্য আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। নিজেরাও আহত হয়েছে। তবে বিএনপি নেতা-কর্মীরা পুলিশের উপর হামলা না করলে এই ধরনের ঘটনা ঘটতো না বলে তিনি জানান।

এসময় তোফায়েল আহমেদ আরো বলেন, আওয়ামী লীগ তৃর্ণমূল পর্যায়ে সাংগঠনিক সফর করলেও বিএনপি তা করেনা। তাই তাদের সাংগঠনিক ভিত্তি নেই। বিএনপি তেল গ্যাস নিয়ে কথা বলে তাদের ক্ষমতার সময় কি অবস্থা ছিলো বলে প্রশ্ন রাখেন তোফায়েল আহমেদ? তিনি বলেন, আমরা এখন ২৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন করি। আমরা যখন ৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রেখে গেছি তাদের সময় ৩ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হতো। পৃথিবীর সব দেশেই কম বেশি সংকট হয়। বাংলাদেশ তার বাইরে নয়। প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ়তার কারণে এই সংকট অচিরেই কেটে যাবে বলে তিনি বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি জনবান্ধব দল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন শহর থেকে গ্রামেও এসেছে। এর বাইরে নয় ভোলাও। ভোলার অধিকাংশ কাজই আমি সম্পন্ন করেছি। রাস্তাঘাট, ব্রীজ, কালভার্ট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। একটি কাজ অসম্পূর্ন রয়েছে তা হলো ভোলা-বরিশাল ব্রীজ। পদ্ম সেতু হয়ে গেছে, এখন প্রাধনমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অচিরেই ভোলা-বরিশাল ব্রীজের কাজ সম্পন্ন হবে।

তোফায়েল আহমেদ ভোলার উন্নয়ন প্রসঙ্গে বলেন, ভোলাকে সুন্দর করে সাজাতে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ চলছে। রাস্তার কাজ শেষ হলে সুন্দর চমৎকার পরিবেশ সৃষ্টি হবে। তিনি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থেকে আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত থাকতে সার্বিক কাজে সহায়তা করেত আহবান জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সাবেক ডেপুটি কমান্ডার মো. সফিকুল ইসলাম, ভোলা সদর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুছ, ভোলা পৌরসভার প্যানেল মেয়র সালাউদ্দিন লিংকন, ভোলা জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: শাহে আলম প্রমুখ।

এর আগে তোফায়েল আহমেদ ভেলুমিয়া ইউনিয়নের শরীফখা বাজার, ভেলুমিয়া ইউনিয়ন বাজার, ভেদুরিয়া এলাকায় ৫টি স্পটসহ ১৫টি স্থানে আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে পথ সভা করেন।