• শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
আওয়ামী লীগ কারও পকেটের সংগঠন নয়: প্রধানমন্ত্রী তারেককে এনে সাজা বাস্তবায়ন করা হবে: শেখ হাসিনা নয়াপল্টনে লাশ ফেলার দুরভিসন্ধি কার্যকর করেছে বিএনপি: কাদের ক্রিকেট দলের জয়ের ধারা আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে: রাষ্ট্রপতি ২০২৪-এর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন, ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী মিরাজের অবিশ্বাস্য সেঞ্চুরি, বাংলাদেশের ২৭১ সমুদ্রকে নিরাপদ রাখতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চলমান সকল যুদ্ধ থামান: বিশ্ব নেতাদের প্রতি শেখ হাসিনা বৈশ্বিক বাণিজ্যের স্বার্থে সমুদ্রকে নিরাপদ রাখা আবশ্যক ছাত্রলীগের প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সমুদ্র সৈকতে ইন্টারন্যাশনাল ফ্লিট রিভিউ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে বিকেলে জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে, ভারতের বিপক্ষে আরেকটি সিরিজ জয়ের হাতছানি জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ব্যাংকে টাকা আছে, সমস্যা নাই: প্রধানমন্ত্রী জনগণ স্বতস্ফুর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে গুজবের জবাব দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৩০০ কোটি মানুষের বাজার ধরতে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান কৃষি জমি নষ্ট করে শিল্পকারখানা নয়: প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ: শেখ হাসিনা

ভোলায় স্বল্পমূল্যের ওএমএস এর খাদ্য সামগ্রী বিক্রয় শুরু

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ নিম্নআয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে ভোলায় শুরু হয়েছে ওএমএস ও টিসিবির সম্মনয়ে ভর্তুকি মূল্যে  খোলা বাজারে চাল বিক্রি কার্যক্রম। বৃহস্পতিবার (১ লা সেপ্টেম্বর) ভোলার কালিনাথ রায়ের বাজার বৌদ্ধ বাড়ী মোড়ে কর্মসূচীর বিতরণ পয়েন্টে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ভোলা জেলা প্রশাসক মো.তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী।

এসময় জেলা প্রশাসক বলেন,স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য সরকার কর্তৃক নির্ধারিত মূল্যে ৭ টি উপজেলায় ৩০ টাকা কেজি দরে ২৪ ডিলারের মাধ্যমে এই কার্যক্রম শুরু  করেছে। এই কর্মসূচী সফল করার জন্য সকল পয়েন্টে মাইকিং করা হয়েছে। যেন স্বল্প আয়ের মানুষ সহজেই সরকারেই এই সেবা নিতে পারেন। এখানে একজন স্বল্প আয়ের  মানুষ ৩০ টাকা ধরে সব্ব্র্চো ৫ কেজি করে চাল দেয়া হবে। এছাড়াও টিসিবির কার্ডধারীরাও এখান থেকে চাল নিতে পারবেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক মো.তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী আরো বলেন, টিসিবির যারা চাল নিতে আসবেন অবশ্যই সঙ্গে জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে আসেবন।যারা খাদ্য বিভাগের দায়িত্ব রয়েছেন তারা অবশ্যই  সঠিক ভাবে মনিটরিং করবেন। এই কার্যক্রমে যেন কোনো রকম অনিয়ম না হয়। সকল নিম্ন ও স্বল্প আয়ের মানুষ যেন চাল পায় ঠিক মতো তদারকি করার জন্য আহবান জানান। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মামুন আল ফারুক,ভোলা সদর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: আলী সুজা,সহকারী খাদ্য নিয়ন্ত্রক সন্দীপ কুমার দাস,খাদ্য বিভাগ, প্রশাসনের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বাজার তুলনায় সল্প মূল্য চাল কিনতে পেয়ে খুশি স্বল্প ও নিম্ন আয়ের মানুষ। চাল কিনেতে আশা রহিমা বেগম (৫৪) বলেন, যে হারে বাজারে সব কিছু দাম বাড়ছে তাতে কইরা আমরা নিম্ম আয়ের মানুষ মরনের পালা হইছে। এখন সরকার যে স্বল্প মূল্যে চাল বিক্রি শুরু করছে তাতে আমাগো অনেক উপকার হইছে। এখন দুই মুডা ভাত খাইয়া কোন রকম বাচঁতে পারমু আরকি।

আমজাদ হোসেন নামে এক বৃদ্ধ বলেন, সরকারের এই ধরনের কর্মসূচী আমরা স্বল্প আয়ের মানুষ অনেক উপকার হয়। তবে এই চাল এর সাথে আটা, তৈল সহ আরো নিত্যপন্য দিতে পারলে ভালো হতো। টিসিবর কার্ড তো সবাই পায় নায়। তাহলে তাগো কি অবস্থা হইবো। আর যা দেয় তা সরকার মনিটরিং না করার কারনে চাল কম দিয়া বাইরে বেইচা দেয় অনেক ডিলার। 

২৪ টি ডিলার এর মাধ্যমে দৈনিক ২ মেট্রিকটন করে ৩৪ মেট্রিক টন চাল বিতরন করা হবে। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত  সপ্তাহে ৫ দিন এ কার্যক্রম চলবে।সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত তিন মাস এই সুযোগ পাবেন।