• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪৩০

  • || ১৫ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে বিচারকদের ক্ষমতার অপব্যবহার রোধকল্পে খেয়াল রাখার আহ্বান মিউনিখ সফরে বাংলাদেশের অঙ্গীকার বলিষ্ঠরূপে প্রতিফলিত হয়েছে পবিত্র রমজানে নিত্যপণ্যের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী

ভোলায় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, জেন্ডার সমতা ও শিশু সুরক্ষা বিষয়ক প্রশিক্ষন কর্মশালা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলায় বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭,জেন্ডার সমতাও শিশু সুরক্ষা বিষয়ক দুদিনের প্রশিক্ষন শুরু হয়েছে। রবিবার(১১ সেপ্টেম্বর)ভোলা জেলা  প্রশাসক মিলনায়তনে এই প্রশিক্ষণ শুরু হয়। সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক  (রাজস্ব) মামুন আল ফারুক এর সভাপত্বিতে  প্রশিক্ষনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা জেলা বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো: তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী ।

সভায় ভোলা জেলায় বাল্য বিবাহর হার কমিয়ে আনার লক্ষ্য নিয়ে আলোচনা করা হয়। বাল্য বিয়ে রোধে  বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ যথাযথ প্রয়োগ এর মাধ্যমে  বাল্য বিয়ে রোধে  ভূমিকা রাখবে বলে বক্তরা জানান। প্রশিক্ষণে জেলা বাল্য বিবাহ নিরোধ কমিটির সদস্য বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কারিগরি সহযোগিতা ও গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডার অর্থিক সহায়তায় আওতায় ভোলা জেলার ৩টি উপজেলায় ৫ বছর মেয়াদী বাংলাদেশ বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। এই প্রকল্পটিতে বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা সুশীলন ভোলা জেলায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্পটি বাল্যবিবাহের হার কমিয়ে আনার জন্য জেলা বাল্য বিবাহ নিরোধ কমিটি সদস্যদের নিয়ে এই প্রশিক্ষনের আয়োজন করেন।

সভায় জেলা প্রশাসক মো: তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী বলেন, ভোলা একটি দ্বীপ জেলা। এই জেলায় নাানান প্রতিকূলতার মধ্যে দিয়ে এখানকার মেয়েদের বেড়ে উঠতে হয়। এই জেলা বাল্য বিয়ের হার কমিয়ে আনার জন্য জন্মনিবন্ধন নিশ্চিত করা, কাজী ঈমামদের নিয়ে সভাবেশ করা হয়েছে। কিন্তু তার পরেও অনেক অভিভাবক মেয়েদের জীবনের ঝুঁকির কথা চিন্তা না করে বিয়ে দিচ্ছে।

তিনি আরো বলেন,  কিশোরী মেয়েদের ১৮ বছর আগে   বিয়ে দেয়া শিশু অধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে । এই বিয়েতে কিশোরীদের কোন মতামত নেয়া হয়না।  বাল্যবিবাহের ফলে সিদ্ধান্ত  গ্রহন ও নিজের মতো জীবন যাপন করতে পারে না  ঐ কিশোরী। এখনো ১৮ বছর বয়স হওয়ার আগেই ৫১ ভাগ মেয়ের বিয়ে হচ্ছে। করোনাকালে এই পরিস্থিতি আরও খারাপ দিকে গেছে। সরকারের সদিচ্ছার পাশাপাশি অভিভাবকদের সচেতনতা, আইনের প্রয়োগ, নজরদারি এবং সরকারি-বেসরকারি সংস্থার মধ্যে সমন্বয় বাড়ানো গেলে   ভোলা থেকে বাল্যবিবাহ বন্ধ করা সম্ভব হবে বলে জানান।

কর্মশালায় অংশ নেয়া কোস্ট ফাউন্ডেশন এর চরফ্যাশন এর টিম লিডার রাশিদা বেগম বলেন,বাল্যবিয়ে রোধে আইনের যথাযথ প্রয়োগ করতে হবে। তা না হলে আমাদের হাজারো কিশোরী মেয়ের বাল্য বিয়ের কারণে তার স্বপ্ন ভঙ্গ হবে।  শুধু তাই নয় যারা  বাল্য বিয়ের সাথে জড়িত তাদের সবাইকে আইনের আওতায় এনে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে কাজি, পুরোহিত এবং জনপ্রতিনিধিদেরও শাশিÍর আওতায় আনতে হবে। ভবিষ্যতে যারা বাল্যবিয়ের দাওয়াত খেতে যাবে তাদের বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থা নেয়ার উদ্যোগ নিতে হবে। তবেই বাল্যবিবাহ বন্ধ সম্ভব হবে।

কর্মশালায় কর্মশালায় অংশ নেয়া  ভোলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম হাবিবুর রহমান বলেন, বাল্য বিবাহর বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টিতে রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী  ইশতিহারে  বাল্যবিবাহ  মুক্ত সমাজ গড়ার   অঙ্গীকার করতে হবে। বিশেষ করে ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের এলাকা ভিত্তিক বাল্যবিয়ে রোধে সচেতনতা বাড়াতে হবে। ইউনিয়ন পর্যায়ে মাসিক সভায় ইউপি সদস্যদের নিয়ে  উন্নয়ন প্রকল্পের পাশাপাশি বাল্য বিয়ে রুখতে  দায়িত্ব নেওয়ার জন্য বলতে হবে।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আছাদুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তামিম আল ইয়ামীন। সভায় ভোলা সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার তৌহিদুল ইসলাম, প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল এর প্রজেক্ট ম্যানেজার মো: আবু সালেহ, প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল জেন্ডার স্পেশালিস্ট নাসরিন নাহার, সার্পোট ইন্ট্রিগেশন স্পেশালিস্ট শহিদুল ইসলাম, সুশীলন টিম ম্যানেজার মো: জিয়াউল হক, সুশীলন এর সহকারী পরিচালক শিরিনা আক্তার প্রমুখ।