• শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
আওয়ামী লীগ কারও পকেটের সংগঠন নয়: প্রধানমন্ত্রী তারেককে এনে সাজা বাস্তবায়ন করা হবে: শেখ হাসিনা নয়াপল্টনে লাশ ফেলার দুরভিসন্ধি কার্যকর করেছে বিএনপি: কাদের ক্রিকেট দলের জয়ের ধারা আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে: রাষ্ট্রপতি ২০২৪-এর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন, ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী মিরাজের অবিশ্বাস্য সেঞ্চুরি, বাংলাদেশের ২৭১ সমুদ্রকে নিরাপদ রাখতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চলমান সকল যুদ্ধ থামান: বিশ্ব নেতাদের প্রতি শেখ হাসিনা বৈশ্বিক বাণিজ্যের স্বার্থে সমুদ্রকে নিরাপদ রাখা আবশ্যক ছাত্রলীগের প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সমুদ্র সৈকতে ইন্টারন্যাশনাল ফ্লিট রিভিউ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে বিকেলে জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে, ভারতের বিপক্ষে আরেকটি সিরিজ জয়ের হাতছানি জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ব্যাংকে টাকা আছে, সমস্যা নাই: প্রধানমন্ত্রী জনগণ স্বতস্ফুর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে গুজবের জবাব দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৩০০ কোটি মানুষের বাজার ধরতে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান কৃষি জমি নষ্ট করে শিল্পকারখানা নয়: প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ: শেখ হাসিনা

ভোলায় দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মহড়া

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ সাজানো গোছানো একটি গ্রাম। গ্রামটিতে রয়েছে দিন মজুর, জেলে, ব্যবসায়ী ও চাকুরীজীবি মানুষের বসবাস। ফজরের আযানের সাথে সাথে ঘুম ভাঙে এ গ্রামের মানুষের। মুসল্লীরা মসজিদে গিয়ে নামাজ আদায় করেন, গৃহিনীরা গৃহকাজে ব্যস্ত হয়ে ওঠেন। কৃষক লাঙ্গল কাঁধে ফসলের মাঠে চলে যান সোনার ফসল ফলাতে। জেলেরা জাল নিয়ে ছুটে চলেন নদীর পানে। শিশুরা পড়াশুনার জন্যে বিদ্যালয় গমন করে। স্বাভাবিক নিয়মেই চলে হাট বাজার আর গ্রামীণ জীবনের নানা ধরণের কাজ। কিন্তু হঠাৎ এক ঘুর্ণিঝড়ে এ গ্রামের সব কিছু ল-ভ- করে দেয়। বন্ধ হয়ে যায় সকল সাভাবিক কাজকর্ম। ঘুর্ণিঝড়ে মানুষের ঘরবাড়ি  বিধ্বস্ত হয়ে অনেকে আহত হয়।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে এমনই চিত্রি দেখা গেছে ভোলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নের চন্দ্র প্রসাদ গ্রামের মানিক মিয়া আইডিয়াল কলেজ মাঠে। দূর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মহড়ায় এমন চিত্রই ফুটে ওঠেছে। যদিও বিষয়টি একটি মহাড়ার অংশ। কিন্তু বাস্তবেও বিভিন্ন ঘুর্ণিঝড়ের সময় ভোলার উপকূল জুড়ে এমনটিই ঘটে আসছে যুগ যুগ ধরে। তাই ঘুর্ণিঝড় সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে এ মহড়ার আয়োজন করা হয়।  পিকেএসএফ এর প্রসপারিটি প্রকল্পের আওতায় ভোলার স্থানীয় এনজিও গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থার বাস্তবায়নে ভেলুমিয়া ইউনিয়ন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটি এ মহড়ার আয়োজন করেন। মহড়ায় কারিগরি সহায়তা করেন ভোলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা।

এ মহড়াকে ঘিরে ভেলুমিয়া ইউনিয়নের চন্দ্র প্রসাদ গ্রামের মানিক মিয়া আইডিয়াল কলেজ মাঠে শত শত নারী পুরুষের সমাগম ঘটে।

এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক মো. আব্দুর রাজ্জাক, গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মো. জাকির হোসেন মহিন, পিকেএসএফ এর সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার খসরু মহিন তানজির আহমেদ, প্রোগ্রাম ম্যানেজার রাশেদুল হাসান, ভেলুমিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মাস্টার প্রমূখ। উপস্থাপনা করেন পুস্টিবিদ বাবুল আখতার।