• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১১ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি গণতান্ত্রিক ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে চায় এক শ্রেণির বুদ্ধিজীবী মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ

ভোলায় মা ইলিশ রাক্ষায় জেলেদের সাথে নৌ-পুলিশের সচেতনতা সভা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০২২  

ভোলায় মা ইলিশ রক্ষায় মধ্যরাত থেকে ২২ দিনের  ইলিশ শিকারে নিষেধাজ্ঞা সফল করার লক্ষে জেলেদের সাথে সচেতনতামূলক সভা করেছে নৌ-পুলিশ ও মৎস্য বিভাগ।

আজ দুপুরে সদর উপজেলার ইলিশা মাছঘাটে নৌ-পুলিশের আয়োজনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময়  বরিশাল নৌ-পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মাহাবুব রহমান, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্যাহ, ইলিশা নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস আই আব্দুর করিম ও স্থানীয় জেলে ও মৎস্য ব্যবসায়ীরা  উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বক্তারা বলেন, ইলিশের ডিম ছাড়ার জন্য ভোলার মেঘনা তেতুলিয়া নদীর মিঠা পানি অনেক গুরুত্বপূর্ণ স্থান। মা ইলিশ ডিম ছাড়ার সুযোগ না পেলে আগামীতে নদীতে ইলিশ পাওয়া যাবে না। একইসঙ্গে জাটকা সংরক্ষণ করতে হবে। মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান সফল করতে আমরা বদ্ধপরিকর। আমরা আশা করি,জেলে ভাইয়েরা নিষেধাজ্ঞাকালে নদীতে ইলিশসহ সব প্রকার মাছ ধরা থেকে বিরত থাকবেন। কেউ যদি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে নদীতে ইলিশ ধরতে নামেন, তবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুশিয়ারী দেন বক্তৃতা।
 এসময় বরিশাল নৌ-পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মাহাবুব রহমান বলেন, বরিশাল বিভাগে ইলিশ সংরক্ষিত এলাকায়    উপকূলীয় ও নদী এলাকায় ইলিশের অভয়া শ্রমগুলোতে মা ইলিশ রক্ষায় টহল অব্যাহত থাকবে নৌ-পুলিশে। যাতে এই সময় কোন জেলে অবৈধ ভাবে মাছ ধরতে না পারে। ইতিমধ্যে ইলিশের প্রজনন মৌসুম সফল করতে  জেলে ও মৎস্য ব্যবসায়ীদের সাথে  জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট বিতরণ,মাইকিং,জনসচেতনতামূলক সভা সহ নানাভাবে প্রচার চালিয়ে সচেতন করছে  নৌ-পুলিশ। জেলা ও মৎস্য ব্যবসায়ীদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ভোলার ইলিশা ঘাটে  লিফলেট বিতরণ করা হয় বলে জানান।
এসময় তিনি আরো বলেন, নৌ-পুলিশ এই ২২ দিনের অভিযান সফল করতে নিয়মিত টহল বৃদ্ধি করা হয়েছে। দিন-রাত টহল অব্যাহত থাকবে। এ সময়ের মধ্যে যদি কেউ আইন ভঙ্গ করে। তাঁদের বিরুদ্ধ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান সফল করতে আমরা বদ্ধপরিকর। আমরা আশা করি, জেলে ভাইয়েরা নিষেধাজ্ঞাকালে নদীতে ইলিশসহ সব প্রকার মাছ ধরা থেকে বিরত থাকবেন।
ভোলা জেলা মৎস্য কর্মকর্তামোল্লা এমদাদুল্যাহ বলেন,মা ইলিশ ডিম ছাড়ার সুযোগ না পেলে আগামীতে নদীতে ইলিশ পাওয়া যাবে না। একইসঙ্গে জাটকা সংরক্ষণ করতে হবে। তাহলেই নদীতে ইলিশ মাছ বাড়বে। তখন আরও বেশি পরিমাণে ইলিশ আহরণ করা যাবে।ইলিশের ডিম ছাড়ার জন্য মেঘনার- তেতুঁলিয়া অংশ অনেক গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে অনেক অসাধু জেলে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে নদীতে নামার চেষ্টা করেন। কেউ যদি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে নদীতে ইলিশ ধরতে নামেন, তবে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।