• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, আজারবাইজান থেকে বড় বিনিয়োগ আহ্বান জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শান্তি ফর্মুলা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার সহযোগিতা চাইলেন জেলেনস্কি কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন শেখ হাসিনা কিছু খুচরো দল তিড়িং বিড়িং করে লাফাচ্ছে: শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

নিষেধাজ্ঞার ২২ দিনে বরিশালে ৮০৮ জেলের কারাদণ্ড

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৪ নভেম্বর ২০২৩  

ইলিশ আহরণ, পরিবহন এবং কেনাবেচার ওপর ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে গেলো মধ্যরাতে। এ সময়ের মধ্যে বরিশালে বিভাগের বিভিন্ন নদীতে অভিযান পরিচালনা করে ৭৮৪টি মামলায় ৮০৮ জেলেকে বি‌ভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া তাদের কাছে থেকে ১৫ লাখ ৩৮ হাজার ৬০০ টাকা জ‌রিমানা আদায় করা হয়। এর মধ্যে শুধু শেষ দিনের ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জেলেকে কারাদণ্ড দেওয়ার পাশাপাশি ২ লাখ ২৯ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

বিভাগীয় মৎস্য অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞাকালীন সময়ে বরিশাল বিভাগে ২ হাজার ৮৩৭টি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে এবং ১ হাজার ১৮টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়েছে। যেখানে গেলো ২২ দিনে বরিশাল বিভাগের ৩১০ বার বি‌ভিন্ন মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র, ৪ হাজার ৩৫৮ বার বি‌ভিন্ন মাছঘাট, ৭ হাজার ৪৭৩ বার বি‌ভিন্ন আড়ত ও ৪ হাজার ৮৬৬ বার বি‌ভিন্ন বাজার পরিদর্শন করেছে মৎস্য অধিদপ্তরে জেলা ও উপজেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তারা।

আর এ সময়ের মধ্যে অভিযানে ১৬ হাজার ১২৩ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি ১০‌ কো‌টি ৭৮ লাখ ৩৩ হাজার টাকা মূল্যের ৫২ লাখ ৬৩ হাজার ৫০০ মিটার অবৈধ জাল জব্দ করা হয়েছে। এছাড়া জব্দ হওয়া সামগ্রী নিলাম করে আয় হয়েছে ১০ লাখ ৫৬ হাজার ২০০ টাকা।

এদিকে বিভাগের ৬ জেলার অভিযানের তথ্য অনুযায়ী, সব থেকে বেশি ৪৮৬ জনের কারাদণ্ড হয়েছে বরিশাল জেলায়। আর সব থেকে কম হয়েছে বরগুনা জেলায়। এছাড়া সবচেয়ে বেশি সাড়ে ১০ টন ইলিশ জব্দ হয়েছে বরিশাল জেলার অভিযানগুলোতে। তবে সবচেয়ে বেশি সোয়া ২২ লাখ মিটার অবৈধজাল জব্দ হয়েছে ভোলা জেলায়। সেই সঙ্গে এই জেলায় নিলামকৃত আয়ের পরিমাণও সব থেকে বেশি ৮ লাখ ১৬ হাজার ৮ শত টাকা।

মৎস্য বিভাগের সহকারী পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন জানান, ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে জেলা-উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি নৌবাহিনী, কোস্টগার্ড, নৌ-পুলিশ, জেলা ও মেট্রোপলিটন পুলিশ, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সার্বিক সহযোগিতা করেছেন।