• শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

  • || ১২ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা

নৌকার টিকিট পেতে লাগবে যে চার যোগ্যতা!

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২৩  

নৌকার টিকিট পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকতে হলে পূরণ করতে হবে চারটি শর্ত। নীতি নির্ধারণী পর্যায় থেকে বলা হচ্ছে, প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে অবশ্যই এ শর্তগুলো বিবেচনায় রাখা হবে। আর বিশেষ বিবেচনায় থাকবে তরুণ আর নারীরা। আগামী ২৮ নভেম্বরের মধ্যে ঘোষণা করা হবে আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা।

তফসিলের পরই যেনো উৎসবে মেতেছিলো বঙ্গবন্ধু এভিনিউ। টানা চারদিন দলীয় মনোনায়ন ফরম বিক্রি আর জমা দেয়ায় নেতা-কর্মীদের ঢল নামে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে।

দলের একটি সূত্র বলছে, এবারের নির্বাচনে তিন হাজার ৩৬২টি মনোনায়ন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। যার আর্থিক মূল্য ১৬ কোটি ৮১ লাখ টাকা।

এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৭৩০টি, চট্টগ্রামে ৬৫৯টি, রাজশাহীতে ৪০৯টি, খুলনায় ৪১৬টি, রংপুরে ৩০২টি, ময়মানসিংহে ২৯৫টি, সিলেটে ১৭২টি, আর বরিশালে ২৫৮টি ফরম বিক্রি হয়েছে। অনলাইনে বিক্রি হয়েছে ১২১টি মনোনায়ন ফরম। গড় হিসেবে প্রতিটি আসনে ১১টি।

এদের মধ্যে কারা থাকছেন এগিয়ে? আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য কর্নেল (অব.) ফারুক খান জানালেন, সবার আগে দেখা হবে নিজ আসনে প্রার্থীর জনপ্রিয়তা কেমন। বিবেচনায় রাখা হবে আওয়ামী লীগের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততা। দেশের সংকটে বিশেষ করে করোনাকালে তাদের ভূমিকা কী ছিলো - এসবও যুক্ত হবে আমলনামায়। আর সবশেষ দেখা হবে ব্যক্তি ইমেজ। বাছাই প্রক্রিয়ায় এ চারটি বিষয় মাথায় রাখবে বোর্ড।

এবার সরাসরি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত না হলেও সাবেক আমলা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক, ব্যবসাসয়ীসহ নানা শ্রেণি-পেশার ব্যক্তিরা চেয়েছেন নৌকার মাঝি হতে। তারাও থাকবেন বিবেচনায়। তবে তুলনামূলক তরুণ আর নারী প্রার্থীরা এগিয়ে থাকবেন বিবেচনায়।

ফারুক খান আরও বলেন, যারা প্রার্থী হবার দৌড়ে আছেন, সবাই প্রস্তুত আছেন প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুছিয়ে। তাই ২৮ তারিখের মধ্যে প্রার্থিতা চূড়ান্ত হলেও শেষ দুদিনে তাদের নির্বাচন কমিশনে মনোনায়নপত্র জমা দিতে বেগ পেতে হবে না।