• শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

  • || ১২ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা

খালে অবমুক্ত বিলুপ্ত প্রজাতির ২ ভোঁদড়

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০২৩  

ভোলার চরফ্যাশনে বিলুপ্ত প্রজাতির দুইটি ভোঁদড় (উদ্‌বিড়াল) উদ্ধারের পর খালে অবমুক্ত করেছে বন বিভাগ।

শুক্রবার দুপুরে উপজেলার সুন্দরী খালে ভোঁদড় দুইটি অবমুক্ত করা হয়। এগুলোর গায়ের রঙ ধূসর। ওজন প্রায় আট কেজি।

জানা যায়, চরফ্যাশন উপজেলার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বসতবাড়ির পুকুরে ভোঁদড় দুইটি গত কয়েকদিন ধরে ভাসতে দেখেন স্থানীয়রা। এগুলো মানুষ দেখলে ডুব দিয়ে পানির নিচে চলে যায়। বিষয়টি নিয়ে বাড়ির মালিকের কৌতূহল সৃষ্টি হলে পুকুরে জাল পাতা হয়। ঐ জালে ধরা পড়ে ভোঁদড় দুইটি। পরে খাঁচায় বন্দি রেখে চরফ্যাশন বন বিভাগকে খবর দিলে তারা এসে এগুলো উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে চরফ্যাশন বন বিভাগের বিট কর্মকর্তা মো. আবুল কাশেম বলেন, বিলুপ্ত প্রজাতির দুইটি ভোঁদড় উদ্ধার করে চরফ্যাশন রেঞ্জের পূর্ব পাশের সুন্দরী খালে অবমুক্ত করা হয়েছে। এসব ভোঁদড় বা উদ্‌বিড়াল এখন আর সচরাচর দেখা যায় না। এরা সাধারণত কম পানি যেমন- ছোট নদী ও পুকুর জলাশয়ে খাবারের সন্ধানে ঘুরে বেড়ায়। খাবারের সন্ধানেই এই ভোঁদড় দুইটি লোকালয়ে চলে এসেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।