• শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-বেইজিং ৭ ঘোষণাপত্র, ২১ চুক্তি সই চীনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই উপযুক্ত সময় তিয়েনআনমেন স্কয়ারে চীনা বিপ্লবীদের প্রতি শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা চীন-বাংলাদেশ হাত মেলালে বিশাল কিছু অর্জন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই সময়: চীনা ব্যবসায়ীদের প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী বেইজিং পৌঁছেছেন, শি জিংপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক আজ দ্বিপক্ষীয় সফরে চীনের পথে প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী চীন সফরে যাচ্ছেন আজ সর্বজনীন পেনশনে যুক্ত হতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান শেখ হাসিনার পড়াশোনা নষ্ট করে কোটাবিরোধী আন্দোলনের কোনো যৌক্তিকতা নেই পিজিআরকে ‘চেইন অব কমান্ডে’র প্রতি আস্থাশীল থেকে অর্পিত দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির টেকসই উন্নয়ন ত্বরান্বিতে কৃষি ও কৃষকের উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে সরকারের কৃষিবান্ধব নীতির ফলে টেকসই কৃষি প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত হয়েছে এমডি পদের জন্য এত লালায়িত কেন, কী মধু আছে: প্রধানমন্ত্রী

ভবিষ্যতে ইন্টারনেট প্যাকেজ আরও সাশ্রয়ী করা হবে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২৪  

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ভবিষ্যতে সারাদেশে ৪জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের পর ইন্টারনেট প্যাকেজ আরও সাশ্রয়ী করা হবে।

তিনি আজ সংসদে টেবিলে উপস্থাপিত সরকারি দলের সদস্য মো. আব্দুল মালেক সরকারের তারকা চিহ্নিত এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন কোম্পানী টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড সরকার নির্দেশিত সর্বনি¤œ কলরেট (৪৫ পয়সা প্রতি মিনিট) গাইডলাইন অনুসরণপূর্বক গ্রাহকদের অন্যান্য অপারেটরের তুলনায় সাশ্রয়ী মূল্যে সেবা প্রদান করে আসছে। ভবিষ্যতে সারাদেশে ৪জি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের পর ইন্টারনেট প্যাকেজ আরও সাশ্রয়ী করা হবে।’  

তিনি জানান, বর্তমানে বাংলাদেশে সেলুলার মোবাইল ফোন অপারেটরের সংখ্যা চারটি। এগুলো হলো- গ্রামীন ফোন লিমিটড, রবি অজিয়াটা লিমিটেড, বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশন্স লিমিটেড এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড। বর্তমানে এ চারটি মোবাইল অপারেটরের নিবন্ধিত সিম সংখ্যা মোট ৩৩ কোটি ২৭ লাখ ৫৬ হাজার ৯৭০টি। এগুলোর মধ্যে সক্রিয় রয়েছে ১৯ কোটি ৩৭ লাখ ৩০ হাজার।

জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, নিবন্ধিত সিমের সংখ্যা গ্রামীণফোনের ১১ কোটি ৯৫ লাখ ৬৭ হাজার ৯২৫ টি, বাংলালিংক -৯ কোটি ৭ লাখ ৬৫ হাজার ৯৬২টি,  রবি অজিয়াটার ১০ কোটি ৭৯ লাখ ৬১ হাজার ৮০০টি এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের ১ কোটি ৪৪ লাখ ৬১ হাজার ২৮৩ টি। এগুলোর মধ্যে গ্রামীণফোনের সক্রিয় সিম সংখ্যা- ৮ কোটি ৩৯ লাখ ৫০ হাজারটি, রবি অজিয়াটার ৫ কোটি ৮৫ লাখ ১০ হাজারটি, বাংলালিংক-এর ৪ কোটি ৪৭ লাখ ২০ হাজারটি এবং টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেডের ৬৫ লাখ ৫০ হাজারটি।