• মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৮

  • || ১২ সফর ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
নিউইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী টিকা নেওয়ার পর খোলার সিদ্ধান্ত নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয় নিতে পারবে বঙ্গবন্ধু ভাষণের দিনকে এবারও ‘বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে’ ঘোষণা ফিনল্যান্ডে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শীর্ষ অর্থনীতির দেশগুলোর অংশগ্রহণ চান প্রধানমন্ত্রী `লাশের নামে একটা বাক্সো সাজিয়ে-গুজিয়ে আনা হয়েছিল` টকশোতে কে কী বলল ওসব নিয়ে দেশ পরিচালনা করি না: প্রধানমন্ত্রী উপহারের ঘরে দুর্নীতি তদন্তে দুদককে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়াকে আসামি করতে চেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী এটা তো দুর্নীতির জন্য হয়নি, এটা কারা করল? ওজোন স্তর রক্ষায় সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতকেও এগিয়ে আসতে হবে ওজোন স্তর রক্ষায় সিএফসি গ্যাসনির্ভর যন্ত্রের ব্যবহার কমাতে হবে ১২ বছরের শিক্ষার্থীরা টিকার আওতায় আসছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দিবেন প্রধানমন্ত্রী প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে শোক প্রস্তাব নিতে চাই না: প্রধানমন্ত্রী এই সংসদে একের পর এক সদস্য হারাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষার রূপরেখা সাজানোর নির্দেশ শিক্ষা কার্যক্রমকে সময়োপযোগী করা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী আগেরবার সব ভালো কাজের জন্য মামলা খেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে শোক প্রস্তাব নিতে চাই না: প্রধানমন্ত্রী

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দুর্ভাগ্য হলো এই সংসদে আমরা একের পর এক সদস্যকে হারালাম এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক। সংসদের এই অধিবেশ শুরুতে আমরা শোক প্রস্তাব নিয়েছি। এরপর অধিবেশন চলাকালে শোক সংবাদ। আজকে আবার শোক প্রস্তাব। এরকম প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে শোক প্রস্তাব নিতে চাই না। আল্লাহ সবাইকে সুস্থ রাখুক।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপিক মাসুদা এম রশিদ চৌধুরীর মৃত্যুতে উস্থাপিত শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ আহ্বান জানান। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন। জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসন-৪৫ এর সদস্য মাসুদা এম রশিদ চৌধুরী গত ১৩ সেপ্টেম্বর মৃত্যুবরন করেন। অধিবেশনের শুরুতেই স্পিকার তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে সংসদে শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করেন।

শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনা সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এই সংসদে আমরা একের পর এক এত সদস্যকে হারালাম এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক। সংসদের এই অধিবেশ শুরুতে আমরা শোক প্রস্তাব নিয়েছি। এরপর অধিবেশন চলাকালে শোক সংবাদ। আজকে আবার শোক প্রস্তাব।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতেও সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, স্বাস্থ্যবিধি যেন সবাই মেনে চলে। একইসঙ্গে যারা টিকা নিয়েছেন তাদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান তিনি।

মাসুদা এম রশিদ চৌধুরীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা একের পর এক সংসদ সসদ্যকে হারাচ্ছি। আমরা সংসদ সদস্য মাসুদা এম রশিদকে হারালাম এটা আমাদের সংসদের জন্য বিরাট ক্ষতি। তিনি বিভিন্নমুখী প্রতিভার অধিকারি ছিলেন। তিনি বেঁচে থাকলে হয়তো সমাজে আরও অবদান রাখতে পারতেন। তার প্রতিভা আমাদের নারী সমাজকে প্রেরণা জোগাবে।

শোক প্রস্তাবের ওপর আরও বক্তব্য রাখেন সংসদের বিরোধী দলের উপ নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের, বিরোধী দলের চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙা, জাতীয় পার্টির আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, কাজী ফিরোজস রশিদ, শামীম হায়দার পাটোয়ারি, নাজমা আক্তার, আওয়ামী লীগের মোসলেম উদ্দিন, সিমিন হোসেন রিমি, ওয়াসিকা আয়শা খান, বিএনপির হারুনুর রশিদ প্রমুখ।

শোক প্রস্তাবের পর রেওয়াজ অনুযায়ী প্রয়াত সংসদ সদস্যের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সংসদের অধিবেশন বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত মুলতবি করা হয়।