• বৃহস্পতিবার   ২৮ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১২ ১৪২৮

  • || ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
এসএসসি পরীক্ষা শুরু ১৪ নভেম্বর জাতীয় প্রয়োজনে সেনাবাহিনী সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকবে ‘বাঙালির পিতার নাম শেখ মুজিবুর’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন বেসরকারি খাতে উদ্যোক্তা তৈরিতে প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ বাংলাদেশ হবে প্রাচ্য-পাশ্চাত্যের সেতু, এখানে বিনিয়োগ করুন বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ নিশ্চিতে সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ: শেখ হাসিনা দেশের ভাবমূর্তি নষ্টকারীদের বিষয়ে সচেতন হতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মাঝে মধ্যে কিছু ঘটিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের অপচেষ্টা হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন পায়রা সেতুতে হাঁটতে পারলে ভালো লাগতো: প্রধানমন্ত্রী সিলেট-ঢাকা চার লেনের নির্মাণকাজের উদ্বোধন বাংলাদেশকে কেউ আর পিছিয়ে রাখতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী স্বপ্নের পায়রা সেতু উদ্বোধন পায়রা সেতুর উদ্বোধন আজ, দক্ষিণাঞ্চলের আরেকটি স্বপ্নপূরণ নেতাকর্মীদের নজরদারি বাড়াতে বললেন শেখ হাসিনা কুমিল্লার ঘটনা দুঃখজনক, অপরাধীর বিচার হবে: প্রধানমন্ত্রী ‘দেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি পণ্য হবে ডিজিটাল ডিভাইস’ সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলেই উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী বিদেশে বিনিয়োগের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী পূর্বাচলে প্রদর্শনীকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন আজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে কঠোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

‘বঙ্গবন্ধুর সাফল্য অসামান্য’ বলেছিলেন সংসদ সদস্যরা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১  

অটোয়ায় কমনওয়েলথ সম্মেলন এবং আলজিয়ার্সে জোটনিরপেক্ষ শীর্ষ সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু অসাধারণ কৃতিত্বের জন্য ১৯৭৩ সালের এই দিন জাতীয় সংসদ সদস্যরা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন। তারা উল্লেখ করেন যে, বঙ্গবন্ধু দেশের রূপকল্পের উচ্চতা বিদেশে আকর্ষণীয়ভাবে তুলে ধরেছেন। সংসদ সদস্যরা বলেন যে, এই দুটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু সাত কোটি সন্তানের স্বপ্ন আশা-আকাঙ্ক্ষাকে কেবল তুলেই ধরেননি, বরং সারা বিশ্বের নির্যাতিত জনগোষ্ঠীর বক্তব্যকে ভাষা দিয়েছেন। সংসদে এ প্রসঙ্গে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. কামাল হোসেন, ডা. এম এ মালেক, কোরবান আলী, ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, অধ্যক্ষ হুমায়ুন খালেক, আব্দুল মোমিন তালুকদার, জালাল আহমেদ ও ড. আসহাবুল হক।

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর গতিশীল নেতৃত্বে বিশ্বের দরবারে জাতির রূপকল্পকে সমৃদ্ধ করেছে। দুটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে অংশগ্রহণ বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি গৌরবময় অধ্যায় সংযোজন করেছে।’ তিনি বলেন, ‘অটোয়ায় বঙ্গবন্ধুর গঠনমূলক ভূমিকা সকলের ব্যাপক প্রশংসা লাভ করে।’ তিনি উল্লেখ করেন যে, জোটনিরপেক্ষ শীর্ষ সম্মেলনে বাংলাদেশের সর্বসম্মত অন্তর্ভুক্তি আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুর একটি অবিস্মরণীয় কৃতিত্ব।’

 দৈনিক ইত্তেফাক, ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯৭৩

ভৈরব সেতু উদ্বোধনের জন্য প্রস্তুত

প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ভৈরব রেল সেতু আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন। সব প্রস্তুতি সম্পন্নের কথা প্রকাশ করা হয় এদিন। মুক্তিযুদ্ধের শেষ পর্যায়ে পাক বাহিনী কর্তৃক বিধ্বস্ত গুরুত্বপূর্ণ সেতুটি মেরামতে ভারতীয়রা সাহায্য-সহযোগিতা করেছে। সেতুটি পুনরায় চালু হলে ঢাকা থেকে কুমিল্লা, সিলেট ও চট্টগ্রামে রেল চলাচলের অসুবিধা দূর হবে বলে জানানো হয়।

বিশ্বব্যাপী সমঝোতায় যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতার আশ্বাস

যুক্তরাষ্ট্রের নবনিযুক্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরি কিসিঞ্জার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণে আশ্বাস বাক্য উচ্চারণ করে বলেন যে, ‘এশিয়া, আফ্রিকা এবং বিশ্বব্যাপী সর্বোচ্চ সমঝোতা প্রতিষ্ঠায় যুক্তরাষ্ট্র  সহযোগিতা করে যাবে। তিনি বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আঞ্চলিক সংঘর্ষ পরিহারের জন্য চেষ্টা করবে।’ মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারত, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যে ক্রমবর্ধমান সমঝোতায় সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি অভিমত প্রকাশ করেন যে, উপমহাদেশ অভিনন্দনযোগ্য সমঝোতার পথে অগ্রসর হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী সমঝোতার মনোভাব সৃষ্টিতে আমরা আমাদের প্রভাব প্রয়োগ এবং বাস্তব উৎসাহ প্রদানের জন্য প্রস্তুত আছি।’

মানবীয় মূল্যবোধের ওপর গুরুত্ব আরোপ করে তিনি ঘোষণা করেন, সমঝোতা থেকে সহযোগিতা এবং সহযোগী অবস্থান থেকে সংহতি প্রতিষ্ঠায় সহায়তা করার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র কোনও প্রচেষ্টা বাদ দেবে না। আমরা এমন এক শান্তির অন্বেষায় সচেষ্ট—স্থিতিশীল শক্তির ভারসাম্য নয়, বরং আশা-আকাঙ্ক্ষার সমশরিকানা সুপ্রতিষ্ঠিত করবো।

 ডেইলি অবজারভার, ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯৭৩

ভাষণে তিনি বলেন, ‘আমরা নিশ্চিত যে, মানবীয় মূল্যবোধের মূল কাঠামো মানবজাতির অধিকাংশেরই আশা পূরণে সমর্থ হবে না।’ মার্কিন পররাষ্ট্রনীতি সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার চেতনায় আমরা নতুন সম্পর্কের সন্ধান অব্যাহত রাখবো। জীবনের সঙ্গে সম্পর্ক রচনায় আমাদের প্রয়াস বহাল থাকবে।’

বাংলাদেশের পাসপোর্টে পাকিস্তানে যায় কীভাবে?

ইংরেজি সাপ্তাহিক হলিডে’র কার্যনির্বাহী সম্পাদকের পাকিস্তান যাওয়াকে কেন্দ্র করে জাতীয় সংসদের অধিবেশনে উত্তপ্ত আলোচনা হয় এদিন। সরকারদলীয় সদস্য ও সাবেক ছাত্রনেতা আব্দুল কুদ্দুস মাখন স্পিকারের মাধ্যমে সরাসরি দৃষ্টি আকর্ষণ করে জানতে চান, তিনি কীভাবে বাংলাদেশ থেকে পাকিস্তান গমন করতে সক্ষম হলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মালেক উকিল সংসদকে নিশ্চয়তা প্রদান করেন যে, তিনি বিষয়টি তদন্ত করবেন এবং বিষয়টি সম্পর্কে সংসদকে অবহিত করবেন। আব্দুল কুদ্দুস মাখন বলেন, ‘পাকিস্তান বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়নি, বরং বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অনমনীয় মনোভাব প্রদর্শন করে আসছে।’ তিনি প্রশ্ন রাখেন, এই পরিস্থিতিতে তিনি কীভাবে পাকিস্তান যান? আব্দুল কুদ্দুস মাখন সাপ্তাহিক হলিডে’র নাম উল্লেখ করে বলেন যে, ‘এই পত্রিকাটি বাংলাদেশ সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং দেশকে হতাশাগ্রস্ত করে তুলছে।’