• শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

  • || ১২ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা

বাংলাদেশকে সর্বপ্রথম ভুটান স্বীকৃতি দিয়েছে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০২৩  

আজ ঐতিহাসিক ৬ ডিসেম্বর। ১৯৭১ সালের এ দিনে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি দিয়েছিল ভুটান ও ভারত। ইতিহাসবিদদের মতে, এ স্বীকৃতির পর থেকেই আন্তর্জাতিক মহলে গ্রহণযোগ্যতা পেতে শুরু করে বাংলাদেশ। গণতন্ত্র ও মানবতার বৈশ্বিক ইতিহাসে অসামান্য তাৎপর্য বহন করছে এ দিনটি।

৪৭-এর দেশ ভাগের ফলস্বরূপ পাকিস্তানের অংশ হওয়ার পর থেকেই শোষণ-নিপীড়নের শিকার হয়ে আসছিল পূর্ববঙ্গের জনসাধারণ। অচিরেই পাকিস্তানের নব্য উপনিবেশিক শাসনকে পরাস্ত করার প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করে দেশের মানুষ। এর ধারাবাহিকতায় ৫২, ৬৬, ৬৯ পেরিয়ে ৭১-এ বঙ্গবন্ধুর ডাকে মুক্তি সংগ্রামে শামিল হয় আপামর জনতা।

দীর্ঘ ৯ মাসের মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চিঠি পাঠায় মুজিবনগর সরকার। তবে আশানুরূপ সাড়া না পাওয়ায় ৭১ এর ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত অধরাই থেকে যায় বাংলাদেশের কাঙ্ক্ষিত স্বাধিকারের স্বীকৃতি। ৬ ডিসেম্বর ভুটান এবং ভারত বাংলাদেশকে প্রথমবারের মতো স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।

ভারতের দৈনিক পত্রিকার তথ্য মতে, সেদিন সংসদে দাঁড়িয়ে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী বাংলাদেশের স্বীকৃতি ঘোষণা করলে উল্লাসে ফেটে পড়েন সংসদ সদস্যরা। জয় বাংলা স্লোগানে সেদিন মুখর হয়ে ওঠে ভারতের সংসদ।

ইতিহাসবিদদের মতে, এ দিনটি বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। সেদিনই আন্তর্জাতিক মহলে গ্রহণযোগ্য হয়ে ওঠে লাল সবুজের পতাকা।

ভারত সরকারকে অভিনন্দন জানিয়ে মুজিবনগর সরকার বলে, এ স্বীকৃতি মানবতা ও গণতন্ত্রের। কেবল বাংলাদেশ নয়, বিশ্বের ইতিহাসে অসামান্য তাৎপর্যপূর্ণ একটি দিন হিসেবে জ্বলজ্বল করছে ৬ ডিসেম্বর।