• শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
আওয়ামী লীগ কারও পকেটের সংগঠন নয়: প্রধানমন্ত্রী তারেককে এনে সাজা বাস্তবায়ন করা হবে: শেখ হাসিনা নয়াপল্টনে লাশ ফেলার দুরভিসন্ধি কার্যকর করেছে বিএনপি: কাদের ক্রিকেট দলের জয়ের ধারা আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে: রাষ্ট্রপতি ২০২৪-এর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন, ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী মিরাজের অবিশ্বাস্য সেঞ্চুরি, বাংলাদেশের ২৭১ সমুদ্রকে নিরাপদ রাখতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চলমান সকল যুদ্ধ থামান: বিশ্ব নেতাদের প্রতি শেখ হাসিনা বৈশ্বিক বাণিজ্যের স্বার্থে সমুদ্রকে নিরাপদ রাখা আবশ্যক ছাত্রলীগের প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সমুদ্র সৈকতে ইন্টারন্যাশনাল ফ্লিট রিভিউ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে বিকেলে জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে, ভারতের বিপক্ষে আরেকটি সিরিজ জয়ের হাতছানি জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ব্যাংকে টাকা আছে, সমস্যা নাই: প্রধানমন্ত্রী জনগণ স্বতস্ফুর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে গুজবের জবাব দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৩০০ কোটি মানুষের বাজার ধরতে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান কৃষি জমি নষ্ট করে শিল্পকারখানা নয়: প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ: শেখ হাসিনা

১৭ কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকির মামলায় দুই আমদানিকারক কারাগারে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০২২  

মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে সিগারেট আমদানি করে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে দুই আমদানিকারককে কারাগারে পাঠিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। তাদের নাম গোলাম মোস্তফা ওরফে বাচ্চু মিয়া এবং রাসেদুল ইসলাম কাফি। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলার আসামি তারা।

এর মধ্যে গোলাম মোস্তফা ঢাকার মিমি লেদার কটেজের স্বত্বাধিকারী এবং রাসেদুল ইসলাম পাবনা সদরের এস কে এস এন্টারপ্রাইজের মালিক। রোববার (২ অক্টোবর) চট্টগ্রামের স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক ড. বেগম জেবুন্নেসা জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক জানান, মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে উচ্চ শুল্কের সিগারেট আমদানি করে সরকারি প্রায় ১৭ কোট টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে চলতি বছরের ৯ ও ১০ মার্চ দুটি মামলা করে দুদক।

দুই মামলায় গোলাম মোস্তফা এবং রাসেদুল ইসলাম প্রধান আসামি। এরপর উচ্চ আদালত থেকে দুই আসামি ৬ মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছিলেন। জামিনের মেয়াদ শেষে ২ অক্টোবর বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিনের আবেদন করেন তারা। আদালত শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ১১ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর সময়ের মধ্যে ব্যাগ ও জুতা তৈরির মেশিন আমদানির ঘোষণা দিয়ে বেনসন সিগারেট আমদানি করেন মিমি লেদার কটেজের মালিক গোলাম মোস্তফা। এসব সিগারেট উচ্চ শুল্কের। ওই চালানে মিথ্যা ঘোষণার মাধ্যমে আমদানিকারক ৮ কোটি ১৮ লাখ ৫ হাজার ১৮৩ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেন।

একইভাবে ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর সময়ের মধ্যে রুটি তৈরির মেশিনের ঘোষণা দিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে উচ্চ শুল্কহারের সিগারেট আমদানি করেন আরেক আমদানিকারক পাবনার এস কে এস এন্টারপ্রাইজের মালিক রাসেদুল ইসলাম কাফি। তিনিও ৮ কোটি ১৫ লাখ ৬ হাজার ১১২ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দেন।

এই দুই ঘটনা অনুসন্ধান শেষে মামলা করে দুদক। মামলায় দণ্ডবিধির ৪০৯, ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮, ৪৭১, ১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ করা হয়। মামলা দুটিতে আমদানিকারক ছাড়াও কাস্টমস কর্মকর্তা, সিঅ্যান্ডএফ প্রতিষ্ঠানসহ আরও অন্তত ১৬ জন আসামি রয়েছেন।