• মঙ্গলবার   ২৪ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯

  • || ২০ শাওয়াল ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
সমুদ্র গবেষণা বাড়ানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর অঞ্চল ভিত্তিক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণের নির্দেশ ভবিষ্যতে মহামারি মোকাবিলায় বৈশ্বিক চুক্তির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘বুঝে-শুনে’ উন্নয়ন পরিকল্পনা নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ব জীববৈচিত্র্য দিবস পালিত হচ্ছে আজ অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন দ. কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন সংকট নিরসনে শ্রীলঙ্কা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরণ করতে পারে রূপপুর মেটাবে বিদ্যুতের চাহিদা, দেবে লাভও দ্রব্যমূল্য নিয়ে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ৪ দফা প্রস্তাব অবিলম্বে বৈশ্বিক সরবরাহ চেইন স্বাভাবিক করার আহ্বান পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিবেশবান্ধব: প্রধানমন্ত্রী খালেদাকে পদ্মায় ফেলতে আর ইউনূসকে চুবিয়ে তুলতে বললেন শেখ হাসিনা কক্সবাজার হবে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের রিফুয়েলিং পয়েন্ট কক্সবাজারে যত্রতত্র স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে কউক’র নতুন ভবনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর টোল নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি আওয়ামী লীগ সরকার আছে বলেই সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে- প্রধানমন্ত্রী ওপেনিংয়ে চতুর্থ সেরা জুটি গড়ে ফিরলেন জয়, তামিমের সেঞ্চুরি

মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতন, পাঁচ নারীসহ গ্রেফতার ৬

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারি ২০২২  

রংপুরের পীরগাছায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় পাঁচ নারীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- ঐ উপজেলার পারুল ইউনিয়নের অনন্দি ধনিরাম গ্রামের গোফ্ফার মিয়ার ছেলে জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়ারু মিয়া, শামসুল হকের স্ত্রী রূপবান, নুর হোসেনের স্ত্রী রাহেনা বেগম, রুবেল মিয়ার স্ত্রী রুমানা বেগম, মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী দুলালী বেগম ও মিঠাপুকুর উপজেলার শালাইপুর (নোয়াখালীপাড়া) গ্রামের নুর ইসলামের স্ত্রী জোসনা বেগম।

শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত রংপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর আগে, বুধবার একই উপজেলার অনন্দি ধনিরাম গ্রামে মা-মেয়েকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। শুক্রবার দুপুরে নির্যাতনের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

নির্যাতনের শিকার মা গোলাপী বেগম ও মেয়ে রাবেয়া বেগম অনন্দি ধনিরাম গ্রামের সাজাহান মিয়ার স্ত্রী ও কন্যা।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, অনন্দি ধনিরাম গ্রামের সুজা মিয়ার ছেলে সাজাহান মিয়ার সঙ্গে প্রতিবেশী গোফ্ফার মিয়ার ছেলে জিয়ারু মিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। বুধবার সকালে আবারো জিয়ারু ও তার লোকজন সাজাহানের জমি দখল করে গাছ ও রাস্তা কাটতে থাকে। ঐ সময় সাজাহান ও তার পরিবারের লোকজন বাধা দেয়। এতে জিয়ারু ও তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে সাজাহানের স্ত্রী গোলাপী বেগম ও মেয়ে রাবেয়া বেগমকে গাছে বেঁধে নির্যাতন চালায়। পরে স্থানীয়রা ৯৯৯-এ কল দিলে পীরগাছা থানার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে। তারা এখনো সেখানে চিকিৎসাধীন।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সাজাহান মিয়া বাদী হয়ে পীরগাছা থানায় ১৮ জনকে আসামি করে মামলা করেন।

রংপুরের এএসপি (সি-সার্কেল) আশরাফুল আলম বলেন, এ ঘটনায় মামলার পর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নারীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।