• শনিবার   ০৮ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ২২ ১৪২৯

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
দেশের বিভিন্ন জেলায় বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী কন্যাশিশুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের কর্তব্য: রাষ্ট্রপতি সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কন্যাশিশুদের নিরাপত্তা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর যাত্রা বিরতি কৃষিতে বাংলাদেশের সাফল্যের সূচনা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব: রাষ্ট্রপতি সোনার বাংলা গড়তে কৃষিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী ‘শিশুদের শারীরিক-মানসিক বিকাশে সুস্থ বিনোদনের বিকল্প নেই’ ‘মুজিববর্ষে ১ লাখ ৮৫ হাজার ১২৯টি ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে’ শিশুদের বুকে বড় হওয়ার স্বপ্ন জাগিয়ে দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামী প্রজন্মের জন্য পরিকল্পিত নগরায়ণের বিকল্প নেই : রাষ্ট্রপতি ‘সেনাবাহিনীর হাজার হাজার অফিসার ও সৈনিক হত্যা করে জিয়া’ যুক্তরাজ্য-যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশের পথে প্রধানমন্ত্রী জিনপিংকে শুভেচ্ছা জানিয়ে হামিদ-হাসিনার চিঠি প্রতিটি ক্ষেত্রে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি অপরিহার্য: রাষ্ট্রপতি দেশে উৎপাদনশীলতা বাড়াতে একযোগে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফেরানোর চেষ্টা চলছে বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে করোনায় প্রবীণদের স্বাস্থ্য ঝুঁকি বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী

মেয়েকে নানির বাড়িতে রেখে অপহরণ নাটক, পুলিশের হাতে ধরা মা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০২২  

বগুড়ার গাবতলীতে প্রবাসী স্বামীর পাঠানো টাকা আত্মসাৎ করার উদ্দেশ্যে মেয়েকে তার নানির বাড়িতে লুকিয়ে রেখে অপহরণ নাটক সাজাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন স্ত্রী। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার উপজেলার দুর্গাহাটা গ্রামে অপহরণ নাটকের ঘটনা ঘটে। আটকরা হলেন-ফারজানা বেগম। তিনি দুর্গাহাটা গ্রামের ইরাক প্রবাসী উকিল আহম্মেদের স্ত্রী। আরেকজন ফারজানার মা নাজমা বেগম। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাবতলী মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম।

তিনি জানান, বুধবার বিকেলে সার্ক মডেল স্কুলে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া তার মেয়ে মঞ্জিলাকে স্কুল ছুটির পর কে বা কারা অপহরণ করে তিন লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করছে বলে গাবতলী থানায় অভিযোগ করেন ফারজানা। এমন অভিযোগ পেয়ে গাবতলী থানা পুলিশের একটি দল দ্রুত ঘটনাস্থলে যায়। এরপর  স্কুলের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ দেখতে পান মঞ্জিলা স্কুল থেকে বের হয়ে বাড়ির দিকে না গিয়ে উল্টোদিকে যাচ্ছে এবং বোরকা পরিহিত এক নারী তার পিছনে যাচ্ছেন। এরপর যে অটোরিকশায় মঞ্জিলা এবং বোরকা পরিহিত নারী যায় সেই অটোরিকশা শনাক্ত করে পুলিশ। পরে পুলিশ জানতে পারে পার্শ্ববর্তী ফুলবাড়ি বাজারে মঞ্জিলার নানি নাজমা বেগম অপেক্ষা করছিলেন। সেখান থেকে মঞ্জিলার মা ফারজানা তার মেয়েকে শেরপুর থানার উলিপুর গ্রামে নানি নাজমার বোনের বাড়িতে রেখে আসেন। 

এরপর তার মেয়েকে অপহরণ করে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হচ্ছে বলে গাবতলী থানায় অভিযোগ করেন ফারজানা। ফারজানার কথাবার্তায় পুলিশের সন্দেহ হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে ফারজানা তার মেয়েকে নিয়ে অপহরণ নাটকের সাজানো কাহিনী খুলে বলেন।

ফারজানা জানান, তার স্বামী উকিল আহমেদ দীর্ঘদিন ইরাক প্রবাসী। উকিল আহমেদ প্রবাস থেকে বিভিন্ন সময় টাকা পাঠাতোন। সেই টাকার মধ্যে আগে দেড় লাখ টাকা হারিয়ে গেছে বলে স্বামীকে জানায়। এছাড়াও আরো ৩ লাখ টাকা ফারজানা আত্মসাৎ করার লক্ষ্যে শিশু মেয়েকে শিখিয়ে দিয়ে অপহরণের নাটক সাজান।

তিনি আরো জানান, তার স্বামী উকিল আহমেদ আগামী দুই এক দিনের মধ্যে ইরাক থেকে বাংলাদেশে আসবেন। স্বামী আসলে বলবেন যে, মেয়েকে অপহরণ করেছিল, ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দিয়ে উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, পুলিশের তাৎক্ষণিক পদক্ষেপে প্রকৃত সত্য বের হয়ে আসে। বর্তমানে ফারজানা ও ফারজানার মা নাজমা বেগম ও শিশু মেয়ে মঞ্জিলা গাবতলী মডেল থানা ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার হেফাজতে রয়েছে।