• মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১০ ১৪৩১

  • || ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
ঢাকা সফরে কাতারের আমির, হতে পারে ১১ চুক্তি-সমঝোতা জলবায়ু ইস্যুতে দীর্ঘমেয়াদি কর্মসূচি নিয়েছে বাংলাদেশ দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশ সর্বদা প্রস্তুত : প্রধানমন্ত্রী দেশীয় খেলাকে সমান সুযোগ দিন: প্রধানমন্ত্রী খেলাধুলার মধ্য দিয়ে আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে: রাষ্ট্রপতি শারীরিক ও মানসিক বিকাশে খেলাধুলা গুরুত্বপূর্ণ: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির বিরুদ্ধে কোনো রাজনৈতিক মামলা নেই: প্রধানমন্ত্রী স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে পশুপালন ও মাংস প্রক্রিয়াকরণের তাগিদ জাতির পিতা বেঁচে থাকলে বহু আগেই বাংলাদেশ আরও উন্নত হতো মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার প্রতি নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রী আজ প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন করবেন মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব না খাটানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দলের নেতাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানায় শেখ হাসিনা মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বর্তমান প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস জানতে পারবে মুজিবনগর দিবস বাঙালির ইতিহাসে অবিস্মরণীয় দিন: প্রধানমন্ত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ নতুন বছর মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রেরণা জোগাবে : প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী

অপহরণের পর মুক্তিপণের জন্য পায়ে শেকল দিয়ে আটকে রাখতেন তারা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারি ২০২৩  

চট্টগ্রাম মহানগরীর হালিশহর থেকে অপহরণের শিকার হওয়া রিকশাচালককে পায়ে শেকল বাঁধা অবস্থায় হাটহাজারী থেকে উদ্ধার করেছে র‍্যাব। একই সময়ে আরেক ভিকটিমকেও উদ্ধার করে র‍্যাব। এ ঘটনায় জড়িত ৮ জনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) রাতে র‍্যাব-৭ এর দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় এ তথ্য। ২৬ জানুয়ারি ভোররাতে হাটহাজারী থানার বারৈহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয় তাদের।

গ্রেফতাররা হলেন- হাটহাজারির পশ্চিম ধলই গ্রামের শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী ওরফে কালু চেয়ারম্যান (৬৮), নোয়াখালীর চরজব্বার থানার মো. খোকন (৩২), একই থানার পশ্চিম চরজব্বর গ্রামের মো. ইউসুফ (৩৬), একই গ্রামের মৃত আবদুল মতিনের ছেলে মো. সেলিম (৫১), সুবর্ণচর থানার চরপানাউল্লাহ গ্রামের মো. আলা উদ্দিন (৩৭), একই গ্রামের মো. নাজিম (৩৬), চরভাগ্যা গ্রামের মো. জহিরুল ইসলাম (৪৮) এবং নোয়াখালী সদর থানার গোড়াপুর গ্রামের মো. মোস্তফা শহিদুল্লাহ রাজু (৩৩)।

র‍্যাব-৭ এর জ্যেষ্ঠ সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার জানান, ২০ জানুয়ারি উত্তর হালিশহর এলাকা থেকে এক রিকশাচালককে অপহরণ করে হাটহাজারী এলাকায় নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। ২১ জানুয়ারি সকালে হালিশহর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন ভিকটিমের পিতা। এরপর ভিকটিমের বাবার মোবাইলে অপহরণকারীরা ফোন করে দেড় লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। পরে গোয়েন্দা তৎপরতা চালিয়ে আসামিদের অবস্থান শনাক্ত করে ২৬ জানুয়ারি রাত দুইটার দিকে অভিযান চালিয়ে ভিকটিমসহ আরেক ভিকটিমকে পায়ে লোহার শেকল ও হাত বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

এসময় অপহরণকারী চক্রের ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয় জানিয়ে তিনি বলেন, চক্রটি দীর্ঘদিন থেকে বিভিন্ন এলাকা থেকে শিশুসহ নানান বয়সী লোকজনকে অপহরণ করে আটকে রাখতো। ভিকটিমের পরিবারের কাছ থেকে মুক্তিপণ হিসেবে চাঁদা আদায় করতো। তাদের দুর্গম পাহাড়ি এলাকার ইটভাটায় কাজ করাতো। রাতের বেলা পায়ে শেকল বেঁধে খুঁটির সঙ্গে তালা মেরে রাখতো।

তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে হালিশহর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান তিনি।