• বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, আজারবাইজান থেকে বড় বিনিয়োগ আহ্বান জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শান্তি ফর্মুলা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার সহযোগিতা চাইলেন জেলেনস্কি কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন শেখ হাসিনা কিছু খুচরো দল তিড়িং বিড়িং করে লাফাচ্ছে: শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

ধর্ষণ মামলায় পাবনা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক কারাগারে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০২৩  

পাবনায় ধর্ষণ মামলায় ডা. কামরুজ্জামান নয়নকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এক তরুণীর করা ধর্ষণ মামলায় তাকে মঙ্গলবার ভোরে গ্রেফতার করা হয়। ডা. নয়ন পাবনা জেনারেল হাসপাতালের নাক কান গলা রোগ বিশেষজ্ঞ (জুনিয়র কনসালটেন্ট)। তিনি পাবনা সদর উপজেলার ক্যালিকো রাজাপুর গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ওই তরুণী পাবনার একটি বেসরকারি ফ্যামিলি হিয়ারিং সেন্টারে চাকরি করেন। ডা. মনিরুজ্জামান নয়ন রোগীদের পরীক্ষার জন্য তার কাছে পাঠাতেন। রোগীর আসা-যাওয়ার মাধ্যমে ডা. নয়নের সঙ্গে তরুণীর ভালো সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেপ্টেম্বরে ডা. মনিরুজ্জামান স্ত্রী অসুস্থ বলে ওই তরুণীকে রান্নার জন্য বাসায় ডাকেন।

মেয়েটি ডাক্তারের বাসায় গেলেও তার স্ত্রীকে দেখেননি। সেখানে তাকে ধর্ষণ করেন। সেই ধর্ষণের দৃশ্য তিনি মোবাইল ফোনে গোপনে ধারণ করে রাখেন। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে বাসায় নিয়ে মেয়েটিকে একাধিকাবার ধর্ষণ করেন। সবশেষ ১১ নভেম্বর সন্ধ্যায় তার বাসায় ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন ডাক্তার মনিরুজ্জামান। এ অবস্থায় উপায় না পেয়ে মামলার সিদ্ধান্ত নেন তরুণী।

পাবনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলী বলেন, তরুণী মঙ্গলবার নিজে বাদী হয়ে পাবনা থানায় মামলা করেছেন এবং তার অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে তরুণীর মেডিকেল পরীক্ষা হয়েছে। তবে রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে তদন্ত শেষে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে। গ্রেফতার ডা. নয়নকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. রফিকুল হাসান বলেন, কয়েক দিন আগে ডা. নয়ন আমার কাছ থেকে ব্যক্তিগত কাজের কথা বলে ছুটি নিয়েছেন। পরে শুনেছি মঙ্গলবার তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিকে ডা. নয়নের স্বজনরা অভিযোগ করেন, মেয়েটি পরিকল্পিতভাবে তাকে ফাঁসিয়েছেন।