• মঙ্গলবার ৩০ মে ২০২৩ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪৩০

  • || ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
শান্তিপূর্ণ গণতান্ত্রিক পরিবেশ আছে বলেই এগিয়ে যাচ্ছে দেশ: প্রধানম সংঘাত নয়, আলোচনায় সমাধান চাই: প্রধানমন্ত্রী বিশ্বব্যাপী শান্তিরক্ষা প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বাংলাদেশ শান্তিরক্ষা মিশনে অন্যতম শীর্ষ শান্তিরক্ষী পাঠানো দেশ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক প্রতিশ্রুতির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সম্পর্ক উন্নয়নে বাংলাদেশ ও চীনের আরও মনোযোগী হওয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী পুলিশকে আরো জনবান্ধব হওয়ার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ২০০৮ সালের নির্বাচনের পর থেকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিরাজ করছে আমরা আর অশান্তি-সংঘাত চাই না, সবার উন্নতি চাই: শেখ হাসিনা শিল্পাচার্য জয়নুলের শিল্পকর্ম আগামী প্রজন্মকে সৃজনশীল কাজে অনুপ্রেরণা যোগাবে: রাষ্ট্রপতি এশিয়ার ‘আয়রন লেডি’ শেখ হাসিনা : দ্য ইকোনমিস্ট আগামী জাতীয় নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে: প্রধানমন্ত্রী কাতারের আমিরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ কাতার সফর শেষে দেশে ফিরলেন প্রধানমন্ত্রী চোরাচালান বন্ধে বিজিবিকে আরও তৎপর হতে রাষ্ট্রপতির নির্দেশ বাংলাদেশের সঙ্গে শক্তিশালী সম্পর্ক গড়তে চায় কাতার ‘নেতৃত্বের উদাহরণ সৃষ্টি করুন, নিজেই পরিবর্তন আনুন’ ‘আন্দোলন সংগ্রামে বঙ্গবন্ধু ছিলেন শান্তির অন্বেষণে নিবেদিত’ বঙ্গবন্ধুর সমগ্র জীবন ছিল শান্তির সাধনায় উৎসর্গকৃত: রাষ্ট্রপতি জাতীয় অর্থনীতিতে শিল্পখাতের অবদান ক্রমেই জোরদার হচ্ছে

ভারতীয় রুপিতে বাণিজ্যে আগ্রহ দেখাচ্ছে যেসব দেশ

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা আতঙ্ক এবং মার্কির ডলারের অস্থিরতার কারণে ভারতীয় রুপিতে মূল্য পরিশোধে আগ্রহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া, ইরান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব, জাপানসহ পশ্চিমা দেশের বাইরের কিছু দেশ। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য এগিয়ে নিতে ভারতও নীতি সংশোধনের মাধ্যমে রুপিতে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের দ্বার খুলে দিয়েছে।

ভারতের শিল্পগ্রুপ ‘টি অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়ার’ মহাসচিব প্রবীর ভট্টাচার্য রুশ গণমাধ্যম স্পুটনিককে বলেন, পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞায় পড়া রাশিয়া ও ইরানের মতো দেশের আমদানিকারকরা ভারতীয় পণ্যের জন্য রুপিতে মূল্য পরিশোধ করতে চাইছেন। প্রকৃতপক্ষে অর্থনৈতিক অবরোধ এড়াতে তারা এ পথে বাণিজ্য এগিয়ে নিতে চান।

প্রবীর ভট্টাচার্য আরও বলেন, প্রধান চা আমদানিকারক দেশ- যেমন সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব, জাপান, শ্রীলঙ্কা এবং চীনও রুপিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ কাজে লাগাতে চাইছে। কারণ, মার্কিন ডলারের ক্ষেত্রে এর জন্য বিশ্বব্যাপী এক প্রকার শুল্ক দিতে হয়।

ভারত সরকারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বিশ্বের এক নম্বর চা উৎপাদনকারী এবং চতুর্থ রফতানিকারক দেশ ভারত। ২০২১ সালের হিসাব অনুসারে, ভারতীয় চা-এর মোট রফতানির প্রায় ১৭.৩ শতাংশ রাশিয়ায়, ১৩.৪ শতাংশ ইরানে এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে রফতানি হয়েছে প্রায় ৮.৮ শতাংশ। চলতি বছর আমদানির পরিমাণ আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মার্কিন ডলারের বিকল্প অনুসন্ধান এখন সময়ের প্রয়োজন হয়ে দাঁড়িয়েছে। ভারতীয় অর্থনৈতিক অ্যাডভোকেসি গ্রুপ স্বদেশী জাগরণ মঞ্চেরসহ আহ্বায়ক অশ্বনী মহাজনের মতে, বৈদেশিক বাণিজ্য এগিয়ে নিতে ভারতের এখন ডলারের বিকল্প খুঁজে বের করা প্রয়োজন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আগামী মাস ও বছরগুলোতে রুপিতে বিদেশি লেনদেন প্রসারিত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ভারতের মার্কিন ডলার থেকে পিছু হটার পেছনে অশ্বনী মহাজন ইরান ও রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞাকে দায়ী করেছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ব্যবসা সম্প্রসারণে ভারতের আরও আগেই স্থানীয় মুদ্রায় বাণিজ্য উৎসাহিত করা উচিত ছিল।