• শুক্রবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
আওয়ামী লীগ কারও পকেটের সংগঠন নয়: প্রধানমন্ত্রী তারেককে এনে সাজা বাস্তবায়ন করা হবে: শেখ হাসিনা নয়াপল্টনে লাশ ফেলার দুরভিসন্ধি কার্যকর করেছে বিএনপি: কাদের ক্রিকেট দলের জয়ের ধারা আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে: রাষ্ট্রপতি ২০২৪-এর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন, ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী মিরাজের অবিশ্বাস্য সেঞ্চুরি, বাংলাদেশের ২৭১ সমুদ্রকে নিরাপদ রাখতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চলমান সকল যুদ্ধ থামান: বিশ্ব নেতাদের প্রতি শেখ হাসিনা বৈশ্বিক বাণিজ্যের স্বার্থে সমুদ্রকে নিরাপদ রাখা আবশ্যক ছাত্রলীগের প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্ত যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সমুদ্র সৈকতে ইন্টারন্যাশনাল ফ্লিট রিভিউ উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে বিকেলে জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে, ভারতের বিপক্ষে আরেকটি সিরিজ জয়ের হাতছানি জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ব্যাংকে টাকা আছে, সমস্যা নাই: প্রধানমন্ত্রী জনগণ স্বতস্ফুর্তভাবে আ.লীগকে ভোট দেয়: শেখ হাসিনা ছাত্রলীগকে গুজবের জবাব দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ৩০০ কোটি মানুষের বাজার ধরতে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান কৃষি জমি নষ্ট করে শিল্পকারখানা নয়: প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র সমুন্নত রাখতে অঙ্গীকারবদ্ধ: শেখ হাসিনা

ফেসবুকে পরিচয়, ভালোবাসার টানে সিরাজগঞ্জে ইন্দোনেশিয়ার তরুণী

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১ সেপ্টেম্বর ২০২২  

এবারে ভালোবাসার টানে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ছুটে এসেছেন ইন্দোনেশিয়ার এক তরুণী সিতি নুরানি। ভালোবেসে বাংলাদেশি তরুণকে বিয়ে করে ঘর বেঁধেছেন ওই তরুণী। সিতি নুরানি ইন্দোনেশিয়ার পারিজাত কুলন থানাধীন কেটরোসনা গ্রামের বাসিন্দা। মালয়েশিয়ার একটি ক্লিনিকে নার্স হিসেবে কর্মরত আছেন তিনি।

জানা যায়, তিন বছর পূর্বে সিতি নুরানির সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় হয় মালেয়েশিয়ান প্রবাসী সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেনের। এরপর তারা সেখানেই বিয়ে করে সংসার শুরু করেন। সম্প্রতি দেশে এসে আবার দেশীয় নিয়ম-নীতি মেনে বিয়ে সম্পন্ন হয়।

ফেসবুকের বন্ধুত্ব থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। চলতি মাসে বাংলাদেশে এসে মঙ্গলবার (৩০ আগস্ট) স্থানীয় মাওলানার মাধ্যমে বাংলাদেশের রীতি ও মুসলিম শরিয়া মোতাবেক ৫০ হাজার টাকা দেনমোহরে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।

ভিনদেশী পুত্রবধূ পেয়ে আনোয়ারের মা বলেন, আমার পুত্রবধূ খুবই ভালো, সে আমাকে মা বলে ডাকে। বিদেশি পুত্রবধূর জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন তিনি।

আনোয়ার হোসেন বলেন, ফেসবুকের মাধ্যমে ইন্দোনেশিয়ান মুসলিম পরিবারের মেয়ে সিতি নুরানীর সঙ্গে পরিচয়ের পর আমরা বিয়ে করেছি। আমার স্ত্রী আমাদের দেশ ও কৃষ্টি কালচার সম্পর্কে আমার কাছ থেকে জেনেছে। আমার পরিবার সম্পর্কে সব কিছু জেনে বাংলাদেশে আসে নুরানি। এরপর মঙ্গলবার শাহজাদপুরে বাংলাদেশের রীতি অনুযায়ী বিবাহ রেজিস্ট্রেশন করেছি।

সিতি নুরানি বলেন, বাবা-মায়ের অনুমতি নিয়েই বিয়ে করি। স্বামীর সঙ্গে সুখে-শান্তিতে ঘর-সংসার শুরু করেছি। সবার কাছে দোয়া চাই। এখানে এসে খুব ভালো লাগছে।

এদিকে, আনোয়ারের ভিনদেশি বধূকে দেখতে প্রতিদিন স্থানীয় লোকজন আনোয়ারের বাড়িতে ভিড় করছেন।

এ ব্যাপারে কৈজুরি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন খোকন বলেন, সম্প্রতি তারা বাড়িতে এসেছে এবং গতকাল দেশীয় নিয়ম-নীতি মেনে বিয়ে সম্পন্ন করেছেন। বিষয়টি এলাকার লোক পজিটিভলি নিয়েছেন এবং প্রতিদিনই অসংখ্য লোক তাদের দেখতে বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন।