• শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

  • || ১২ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা

পায়ে ক্ষত নিয়ে থানার ডিউটি অফিসারের কক্ষে হনুমান!

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২২ জুলাই ২০২৩  

এবার মাগুরাতে ঘটেছে অবিশ্বাস্য এক ঘটনা। পায়ে ক্ষত নিয়ে থানার ডিউটি অফিসারের কক্ষে হাজির হয়েছে এক হনুমান। এমনই ঘটনা ঘটেছে মাগুরার শ্রীপুর থানায়।

বৃহস্পতিবার (২০ জুলাই) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওসি, ডিউটি অফিসারসহ পুলিশ সদস্যরা চিকিৎসক দেখিয়ে সুস্থ করে তোলার পর ওই হনুমান ফিরে যায়।

স্থানীয়রা জানান, বিভিন্ন স্থান থেকে আসা হনুমানগুলো মানুষের দেওয়া খাবার খেয়ে জীবনযাপন করে থাকে। খাবার খাওয়ার জন্য বন থেকে তারা লোকালয়ে চলে আসে এবং খাবার খেয়ে আবার চলে যায়। এমনই একটি হনুমান বৃহস্পতিবার সকালে পায়ের জখম নিয়ে শ্রীপুর থানার ডিউটি অফিসারের কক্ষে হাজির হয়। এসময় অফিসারের কক্ষের টেবিলের পাশে বসে তার পায়ের ক্ষতস্থান দেখাচ্ছিল হনুমানটি। তখন থানার ওসি, ডিউটি অফিসারসহ পুলিশ সদস্যরা তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

থানা চত্বরে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মুহাম্মদ হুসাইন রাসেলের তত্ত্বাবধানে একটি টিম হনুমানটিকে চিকিৎসা দেয়। পরে চিকিৎসা শেষে থানা চত্বর থেকে ফিরে যায় ওই হনুমান।

হনুমানটি কোনো গাছে উঠতে গিয়ে অথবা কোনো ব্যক্তির আঘাতে জখম হতে পারে বলে প্রাথমিক ধারণা চিকিৎসক ও পুলিশের।

মাগুরা শ্রীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাঞ্চন কুমার রায় ঢাকা পোস্টকে বলেন, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে একটি হনুমান থানায় ডিউটি অফিসারের রুমে ঢুকে তার পায়ের ক্ষতস্থান দেখানোর চেষ্টা করে। আমি বিষয়টি জানার পর তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করি। বিষয়টি প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তাকে জানানো হলে তাকে চিকিৎসা দেন। চিকিৎসা পেয়ে হনুমানটি সুস্থ হয়ে থানা থেকে চলে যায়।

তিনি বলেন, এ হনুমানগুলো আঘাত পেলে সরাসরি পুলিশের কাছে চলে আসে। এর আগেও কেশবপুরে এমন ঘটনা ঘটেছিল।