• মঙ্গলবার   ২৪ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯

  • || ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
সমুদ্র গবেষণা বাড়ানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর অঞ্চল ভিত্তিক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণের নির্দেশ ভবিষ্যতে মহামারি মোকাবিলায় বৈশ্বিক চুক্তির আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ‘বুঝে-শুনে’ উন্নয়ন পরিকল্পনা নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ব জীববৈচিত্র্য দিবস পালিত হচ্ছে আজ অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন দ. কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দন সংকট নিরসনে শ্রীলঙ্কা ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মডেল’ অনুসরণ করতে পারে রূপপুর মেটাবে বিদ্যুতের চাহিদা, দেবে লাভও দ্রব্যমূল্য নিয়ে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ৪ দফা প্রস্তাব অবিলম্বে বৈশ্বিক সরবরাহ চেইন স্বাভাবিক করার আহ্বান পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিবেশবান্ধব: প্রধানমন্ত্রী খালেদাকে পদ্মায় ফেলতে আর ইউনূসকে চুবিয়ে তুলতে বললেন শেখ হাসিনা কক্সবাজার হবে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের রিফুয়েলিং পয়েন্ট কক্সবাজারে যত্রতত্র স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে কউক’র নতুন ভবনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর টোল নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি আওয়ামী লীগ সরকার আছে বলেই সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে- প্রধানমন্ত্রী ওপেনিংয়ে চতুর্থ সেরা জুটি গড়ে ফিরলেন জয়, তামিমের সেঞ্চুরি

করোনায় বাড়ছে কিডনি, লিভার ও হৃদরোগীর সংখ্যা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারি ২০২২  

করোনার উপসর্গ মৃদু হলেও এর দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব হতে পারে ভয়ংকর। এমনটাই দাবি করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, করোনাকালীন সময়ে কিডনি, লিভার ও হৃদরোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে।

সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গেছে করোনা রোগে আক্রান্ত রোগীরা ভাগ্যক্রমে করোনাকে জয় করতে পারলেও জয় করতে পারছে না এর দীর্ঘমেয়াদি লক্ষণগুলোকে।

চিকিৎসকরা বলছে, করোনা ভাইরাসটি আমাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গগুলোর মধ্যে প্রভাব বিস্তার করতে সক্ষম। তাই এই রোগের পরিধি অনেক বিস্তৃত। গবেষকদের ধারাবাহিক গবেষণায় আমরা প্রতিনিয়ত জানতে পারছি এই ভাইরাসটি সম্পর্কে নতুন নতুন তথ্য।

বিশেষজ্ঞদের মতে করোনা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে বেশির ভাগ রোগীই অন্যান্য রোগে আক্রান্ত হয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যে পিঠ, ঘাড়, কোমড় সহ শরীরের বিভিন্ন পেশীর মধ্যে অহনীয় ব্যথা রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক সমীক্ষায় দেখা যায় যেসব ব্যক্তি করোনাকে জয় করতে পেরেছে তারা পরবর্তীতে বিভিন্ন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। বিশ্বে এই সংখ্যার ৭৫ ভাগই উন্নয়নশীল দেশের জনগণ।

হৃদরোগজনিত বিভিন্ন রোগের মধ্যে হার্ট ফেলিওর বা হার্ট অ্যাটাকের সংখ্যাই বেশি। হৃদরোগজনিত রোগ ছাড়াও কিডনি ও লিভারজনিত সমস্যায়ও অনেক রোগী প্রাণ হারাচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়য়ের এক গবেষণায় উঠে এসেছে  করোনা আক্রান্ত রোগীদের শরীর ভীষণভাবে দুর্বল থাকে। এই দুর্বল শরীর নিয়ে যখন এরা হাসপাতালে ভর্তি হন তখন তাদের অন্যান্য সমস্যার সঙ্গে দেখা দেয় হৃদজনিত সমস্যা।

ইংল্যান্ডের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এই বিষয়ে বিস্তারিত গবেষণা করলে তারা জানায় করোনা থেকে সেরে ওঠা রোগীর এক মাসের মধ্যে হৃদরোগজনিত সমস্যা দেখা দেয়। পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে মোড় নেয় যখন রোগী আগেই হৃদরোগজনিত রোগে আক্রান্ত থাকে।

তাই করোনা রোগটি থেকে সুস্থ হওয়ার পরও মেনে চলতে হবে কিছু সতর্কতা। বুকে ব্যথা বা শ্বাসকষ্টের মতো যে কোনো সমস্যা দেখা দিলে সময় নষ্ট না করে দ্রুত নিতে হবে চিকিৎসকের পরামর্শ। সেই সঙ্গে আমাদের মধ্যে বাড়াতে হবে এই রোগটি সম্পর্কে সচেতনতা।