• রোববার   ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৫ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় রাজশাহীবাসী, ব্যাপক জনসমাগমের প্রস্তুতি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ সাধারণ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী আপনি কি আল্লাহর ফেরেস্তা, ফখরুলকে কাদেরের প্রশ্ন কাউকে সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেব না: প্রধানমন্ত্রী আর্থসামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল: প্রধানমন্ত্রী বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে কাস্টমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে একাত্তরে গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমার ব্যর্থতা থাকলে খুঁজে বের করে দিন: প্রধানমন্ত্রী পরবর্তী লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিটি শিক্ষার্থী যেন স্কাউট প্রশিক্ষণ পায়: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত, সন্ত্রাস ও ক্ষমতা দখলকে পেছনে ফেলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে মাইকেল মধুসূদন দত্ত বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র ২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় হবে ১২ হাজার ডলার: প্রধানমন্ত্রী টেক্কা দিয়ে বাংলাদেশের এগোনো অনেকের পছন্দ না: প্রধানমন্ত্রী জনগণের পয়সায় সুযোগ-সুবিধা, তাদের সেবা করুন বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক হবেন মা- হাইকোর্টের রায় অপ্রয়োজনীয় ব্যয় কমিয়ে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর ২৫ নির্দেশনা জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করতে হবে: ডিসিদের প্রধানমন্ত্রী

উন্নয়নশীল দেশগুলো ঋণের বোঝায় জর্জরিত: বিশ্বব্যাংক

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০২২  

উন্নয়নশীল দেশগুলো অর্থসংকট ও ঋণের বোঝায় জর্জরিত। এছাড়া উচ্চ মূল্যস্ফীতি এবং জলবায়ু পরিবর্তনের মুখোমুখি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ডেভিড ম্যালপাস।

মিশরীয় শহর শারম-আল-শেখে জাতিসংঘের উদ্যোগে আয়োজিত ২৭তম জলবায়ু সম্মেলনে শুক্রবার (১২ নভেম্বর) অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি। বিশ্বের প্রায় ২০০ দেশের প্রতিনিধি এ সম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন।

ডেভিড ম্যালপাস বলেন, উন্নয়নশীল দেশগুলো আজকে নিজেরাই একটি সংকটের সম্মুখীন হয়েছে। বর্তমানে নানা কারণে উন্নয়নে বিপর্যয় হচ্ছে যা সত্যিই অনভিপ্রেত। সংকুচিত অর্থনীতি, চরম দারিদ্র্য, শিক্ষার অভাব, বিদ্যুৎ, বিশুদ্ধ পানি, উচ্চ বেকারত্ব এবং অবকাঠামোর অভাব ছড়িয়ে পড়েছে। বিশ্বব্যাংক এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ খাতগুলো পুনরুদ্ধারে অর্থায়নে নিযুক্ত রয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে প্রতিটি পরিবর্তন আরও খারাপ হয়েছে, যা পুনরুদ্ধারে কাজ করছে বিশ্বব্যাংক।

সম্প্রতি জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহতা তুলে ধরে বিশ্বব্যাংক প্রধান বলেন, পাকিস্তানে বন্যার মতো জলবায়ু বিপর্যয় মোকাবিলায় আমরা আমাদের অর্থায়ন বাড়িয়েছি। আমরা জলবায়ু অর্থায়ন বাড়িয়েছি। পাকিস্তানের ঘটনার জন্য দায়ী জলবায়ু পরিবর্তন। জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবিলায় আমরা অর্থায়ন বাড়িয়ে ৩২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার করেছি যা রেকর্ড বলা যায়। কপ-২৬ এ স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে যে কথা দিয়েছিলাম তা ছাড়িয়ে গেছে।