• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১১ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি গণতান্ত্রিক ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে চায় এক শ্রেণির বুদ্ধিজীবী মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ

খেরসনে ৪ শতাধিক যুদ্ধাপরাধের তথ্য মিলেছে: জেলেনস্কি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০২২  

রাশিয়ার বিরুদ্ধে আবারও যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ তুলেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি বলেছেন, রুশ সেনারা খেরসন ছেড়ে যাওয়ার পর তদন্তকারীরা ইতিমধ্যে ৪০০টিরও বেশি রাশিয়ান যুদ্ধাপরাধ নথিভুক্ত করেছেন। খবর বিবিসির।

রোববার স্থানীয় সময় রাতে এক ভাষণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, রুশ সেনারা খেরসন ছেড়ে যাওয়ার পর সেখানে বেসামরিক নাগরিক ও সেনাদের মৃতদেহ পাওয়া গেছে।

জেলেনস্কি আরও বলেন, খেরসনে রাশিয়ান সেনাবাহিনী আমাদের দেশের অন্যান্য অঞ্চলের মতো একই নৃশংসতা চিহ্ন রেখে গেছে।

ভাষণে জেলেনস্কি এই যুদ্ধ অপরাধের বিচার করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন। তিনি বলেন, প্রত্যেক খুনিকে খুঁজে বের করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসব। এতে কোনো সন্দেহ নেই।

গত শুক্রবার খেরসন ছেড়েছে রাশিয়ান সৈন্যরা। খেরসনে আবারও ইউক্রেনের পতাকা উড়িয়েছে দেশটির সেনারা।

ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরুর পর থেকে খেরসনই ছিল একমাত্র আঞ্চলিক রাজধানী, যা রাশিয়ার দখলে ছিল। সেপ্টেম্বরে ক্রেমলিনে এক অনুষ্ঠানে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই অঞ্চলটিকে রাশিয়ার অংশ হিসেবে ঘোষণা করেছিলেন। শুক্রবার রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় খেরসন থেকে ৩০ হাজারের বেশি সেনা তারা প্রত্যাহার করে নিয়েছে। পাশাপাশি ৫ হাজার সামরিক সরঞ্জামও প্রত্যাহার করা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট পুতিনের বিরুদ্ধে ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ উঠেছিল আগেই। জাতিসংঘের একটি কমিশন গত মাসেও বলেছে যে, ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধ সংঘটিত হয়েছে। যুদ্ধ শুরুর পর থেকে বুচা, ইজিয়ুম ও মারিউপোলসহ এলাকায় গণকবর পাওয়া গেছে। ইউক্রেন এই নৃশংসতার পিছনে রুশ সেনাদের দায়ী করেছে। খেরসন ফিরে পাওয়ার পর রাশিয়ার বিরুদ্ধে আবারও যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ তুললেন জেলেনস্কি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের অভিযোগ, ইচ্ছাকৃতভাবে বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। তবে মস্কো বিষয়টি অস্বীকার করেছে।

এদিকে ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ কারফিউ জারি করেছে এবং খেরসনের ভেতরে ও বাইরে যাতায়াত সীমিত করেছে।