• রোববার   ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৫ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় রাজশাহীবাসী, ব্যাপক জনসমাগমের প্রস্তুতি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বিদায়ী সাক্ষাৎ সাধারণ নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী আপনি কি আল্লাহর ফেরেস্তা, ফখরুলকে কাদেরের প্রশ্ন কাউকে সম্প্রীতি নষ্ট করতে দেব না: প্রধানমন্ত্রী আর্থসামাজিক উন্নয়নে বাংলাদেশ এখন রোল মডেল: প্রধানমন্ত্রী বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে কাস্টমের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে একাত্তরে গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমার ব্যর্থতা থাকলে খুঁজে বের করে দিন: প্রধানমন্ত্রী পরবর্তী লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিটি শিক্ষার্থী যেন স্কাউট প্রশিক্ষণ পায়: প্রধানমন্ত্রী সংঘাত, সন্ত্রাস ও ক্ষমতা দখলকে পেছনে ফেলে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে মাইকেল মধুসূদন দত্ত বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র ২০৪১ সালে মাথাপিছু আয় হবে ১২ হাজার ডলার: প্রধানমন্ত্রী টেক্কা দিয়ে বাংলাদেশের এগোনো অনেকের পছন্দ না: প্রধানমন্ত্রী জনগণের পয়সায় সুযোগ-সুবিধা, তাদের সেবা করুন বাবার পরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক হবেন মা- হাইকোর্টের রায় অপ্রয়োজনীয় ব্যয় কমিয়ে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর ২৫ নির্দেশনা জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করতে হবে: ডিসিদের প্রধানমন্ত্রী

৮ মাস পর মুক্ত খেরসনে গেলো ইউক্রেনীয় ট্রেন

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২২  

ইউক্রেনের খেরসন শহরে রুশ দখলদারিত্ব অবসানের পর ক্রমেই সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসছে। দীর্ঘ আট মাস পর শুক্রবার প্রথমবারের মতো কিয়েভ থেকে সেখানে একটি ইউক্রেনীয় ট্রেন ছেড়ে গেছে। শনিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রেনটিতে ২০০ জনের মতো যাত্রী ছিল।

টেলিগ্রামে দেওয়া পোস্টে এই ট্রেনযাত্রার ঘটনায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের দফতরের উপপ্রধান কিরিলো টিমোশেঙ্কো। তার ভাষায়, ‘এটা আমাদের বিজয়ের ট্রেন! এই ট্রেনের মতো, স্বাভাবিক জীবন ফেরাতে আমরা খেরসনে ফিরে যাবো।’

এর আগে গত আট মাস ধরে রুশ দখলদারিত্বের মধ্যে ছিল এ অঞ্চলের বাসিন্দারা। তবে গত ৯ নভেম্বর রুশ সেনাদের খেরসনের পশ্চিম তীর থেকে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। সেপ্টেম্বরে যে চারটি ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডকে নিজেদের ভূখণ্ড বলে ঘোষণা করে খেরসন সেগুলোর একটি। ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধে রাশিয়ার দখল করা একমাত্র প্রাদেশিক রাজধানী এটি। ডিনিপ্রো নদীর পশ্চিম তীরে এই শহরটির অবস্থান।

রুশ বাহিনী শহরটি ছেড়ে যাওয়ার পর ইতোমধ্যেই ইউক্রেনীয় সেনারা শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। ফের মাঠে নেমেছে পুলিশ সদস্যরাও। ইউক্রেনের জাতীয় পুলিশ প্রধান ইহোর ক্লাইমেনকো বলেছেন, প্রায় ২০০ জন কর্মকর্তা শহরে কাজ করছেন। বিভিন্ন স্থানে চেকপয়েন্ট স্থাপন করা হচ্ছে। সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের প্রমাণ নথিভুক্ত করতে কাজ করছে পুলিশ সদস্যরা।